বুধবার ১৭ জুলাই, ২০১৯ ইং , ২ শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৩ জিলক্বদ, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

সানডেকে ছাড়াই ইতিহাস গড়তে উন্মুখ আবাহনী

জুন ২৫, ২০১৯ | ৯:৫০ অপরাহ্ণ

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট।।

ঢাকা: ভিসা জটিলতা কাটেনি সানডে সিজোবার। সেরা স্ট্রাইকারকে ছাড়াই এএফসি কাপে দেশের ক্লাব ইতিহাসে প্রথমবারের মতো নক আউট পর্বতে যেতে চায় ঢাকা আবাহনী। এর আগেও একবার ভিসা জটিলতা কাটিয়ে সানডেকে ভারতে নেয়া গেলেও এবার আর হচ্ছে না। নেয়া যাচ্ছে না বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতাকে। এই নাইজেরিয়ানকে ছাড়াই ইতিহাস গড়ার লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নামতে চলেছে আকাশি-হলুদরা।

আর মাত্র একটা ম্যাচে আশাব্যাঞ্জক পারফর্মেন্স করলেই দেশের ক্লাব ইতিহাসের ঐতিহাসিক মুহূর্তের জন্ম দিবে আবাহনী। নাম লেখাবে এএফসি কাপের নক আউট পর্বে। তার জন্য আগামিকাল (বুধবার) ভারতের মিনার্ভা পাঞ্জাবের কাছে কোনভাবেই হারা যাবে না।

ইতিহাস নিশ্চিত করতে ড্র তো করতেই হবে সঙ্গে জিততে হবে প্রাথমিকভাবে। যদিও অনেক সমীকরণকে সামনে রেখে বুধবার বিকাল সাড়ে ৪টায় গোহাটিতে মিনার্ভার বিপক্ষে মাঠে নামবে মারিও লেমসের শিষ্যরা।

টুর্নামেন্টজুড়ে এবার দুর্দান্ত ফুটবল উপহার দিয়েই ই গ্রুপে ১০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে ঢাকা আবাহনী। যুদ্ধটা মূলত ৮ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে আবাহনীর ঘাড়ে নিশ্বাস ফেলা চেন্নাইয়িন এফসির সঙ্গে। একই দিনে নেপালের মাঠে মানাং মার্শিয়াংদির মুখোমুখি হবে ভারতের দলটি। এ ম্যাচ তাদের জিততেই হবে।

বিজ্ঞাপন

অন্যদিকে গ্রুপে পাঁচ ম্যাচে ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়া মিনার্ভাবে তাদের মাটিতেই হারাতে হবে আবাহনীকে। হোম ম্যাচে এদের সঙ্গেই ২-২ ব্যবধানে ড্র করেছিল মামুন-বেলফোর্টরা। সানডেকে ছাড়াই প্রাথমিকভাবে এই হারহীন মিনার্ভাকে হারাতে হবে।

মানাংকে ৫-০ ব্যবধানে উড়িয়ে দিয়ে আত্মবিশ্বাসের তুঙ্গে ঢাকা আবাহনী। দুটি করে গোল আছে জীবন, মামুন, বেলফোর্ট, মাশিহ সাইঘানির ঝুলিতে। এবারও গোলের যাত্রা অব্যাহত রাখতে উন্মুখ ফুটবলাররা।

এদিকে দুদিন আগে ভারতের মাটিতে পা রাখা আবাহনী অনুশীলনের মধ্যেই আছে। দলের ম্যানেজার সত্যজিত দাস রুপু সারাবাংলাকে দলের আপডেট জানান, ‘দল দুদিন ধরে ভালো অনুশীলন করছে। সানডেকে পাচ্ছি না। তাকে ছাড়াই দলের পরিকল্পনা হয়েছে। আশা করি জয় দিয়ে ইতিহাসের অংশ হতে চাই।’

দলের প্রধান কোচ মারিও লেমসের কণ্ঠেও ইতিহাসের হাতছানি, ‘এতদিন আমি কিছু বলিনি। এখন বলব আমাদের দ্বিতীয় রাউন্ডের যাওয়ার সুযোগ হয়েছে। সুযোগটি আমাদের কাজে লাগাতে হবে।’

যেভাবে নক আউট পর্ব নিশ্চিত করবে ঢাকা আবাহনী:
মিনার্ভার সঙ্গে জিতলে আর কিছুই দেখতে হবে না আবাহনীর। সরাসরি গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে ইন্টার জোনাল সেমি ফাইনালে পা রাখবে আকাশি-হলুদরা। ড্র করলেও নক আউটে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে। পয়েন্ট হবে ১১। এদিকে চেন্নাইয়িনকে ড্র বা হারতে হবে। অন্যদিকে যদি আবাহনী হেরেও যায় তাহলেও নক আউট পর্বে পা রাখতে পারে। সেক্ষেত্রে মানাংয়ের কাছে হারতে হবে চেন্নাইয়িনকে। আর আবাহনী হেরে গেলে ও চেন্নাইয়িন জিতে গেলে ১১ পয়েন্ট চেন্নাইয়িন চলে যাবে নক আউট পর্বে। আর যদি আবাহনী ড্র করে আর চেন্নাইয়িন জিতে যায় তাহলে একই পয়েন্ট (১০) নিয়েও অ্যাওয়ে গোলের অগ্রগামিতায় নক আউট পর্বে চলে যাবে চেন্নাইয়িন।

কত সমীকরণই না আছে। তবে, কাল গোহাটির ইন্দ্রিরা গান্ধী অ্যাথলেটিক্স স্টেডিয়ামে বিকাল সাড়ে চারটায় ম্যাচে আবাহনী জয় নিয়েই ইতিহাস গড়তে চায়। সেই পথটা কঠিন নয় আবার সহজও নয়।

সারাবাংলা/জেএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন