বুধবার ১৭ জুলাই, ২০১৯ ইং , ২ শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৩ জিলক্বদ, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

ভার্জিনিয়ায় ভয়াবহ দুর্ঘটনায় আহত বাংলাদেশি মা ও ২ ছেলে

জুলাই ২, ২০১৯ | ১:০৯ অপরাহ্ণ

পরবাস প্রতিবেদন

যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়ায় ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন এক মা ও তার দুই ছেলে। গত ২৬ জুন ভার্জিনিয়ার রিচমন্ডে স্থানীয় সময় রাত ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। একটি দাওয়াতে অংশ নেওয়ার পর দুই সন্তানকে নিয়ে নিজে গাড়ি চালিয়ে ঘরে ফিরছিলেন মা রুমানা আক্তার নুপুর। পথিমধ্যে অপর একটি গাড়ির সঙ্গে সংঘর্ষে তাদের গাড়িটি প্রচণ্ড আঘাতে দুমড়ে মুচড়ে যায়। এতে তিন মা ছেলেই গুরুতর আহত হলেও প্রাণে বেঁচে যান।

রুমানার স্বামী দিফারুল ইসলাম দীপু সারাবাংলাকে জানান, তিন মা ছেলে এখন ঝুঁকিমুক্ত। তবে তার স্ত্রীর কোমড়ের পাঁজরের দিকটা ভীষণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এছাড়া বুকের খাঁচার তিনটি হাড় ভেঙ্গে গেছে। এছাড়া ছোট ছেলে সামী’র ডান হাত ও বাম পা ভেঙ্গে গেছে। বড় ছেলে অপেক্ষাকৃত কম জখম হলেও তারও বুকে ও পেটে প্রচণ্ড চাপ লেগেছে।

দিফারুল জানান, ঘটনার দিনই তিনি বিশেষ কাজে বাংলাদেশে এসেছিলেন, খবর শুনে দ্রুত যুক্তরাষ্ট্র ফিরে গেছেন। তার স্ত্রী এখনও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। দুই ছেলেকে হাসপাতাল থেকে বাড়িতে আনা হয়েছে।

দিফারুল বলেন, আমার স্ত্রীর ওপর আঘাতটা সবচেয়ে গুরুতর ছিলো। তিনি নিজেই ড্রাইভ করছিলেন। তার কোমড়ের পাঁজর দুমড়ে মুচড়ে গেছে। তবে এরই মধ্যে এখান ভিসিইউ মেডিকেল সেন্টারের চিকিৎসকরা তার সফল অস্ত্রপোচার করেছেন। তারা রুমানা আক্তারের সুস্থ হয়ে ওঠার বিষয়ে আশাবাদী।

বিজ্ঞাপন

এক দশকেরও বেশি সময় ধরে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবাসী এই বাংলাদেশি পরিবারটি। দিফারুল জানান, দুর্ঘটনার পর দ্রুত তাদের হাসপাতালে নেওয়া সম্ভব হয়, এবং সেখানে সুচিকিৎসাই তারা পাচ্ছেন।

তবে দুর্ঘটনা প্রসঙ্গে নিজের স্ত্রীর বরাত দিয়ে দিফারুল বলেন, অপর গাড়িটি ট্রাফিক সিগন্যাল অমান্য করেই তার স্ত্রীর চালানো গাড়িটির উপর আঘাত করে।
এ ব্যাপারে পুলিশে কোনও অভিযোগ করা হবে কিনা, জানতে চাইলে দিফারুল বলেন, এই মূহূর্তে সকলের সুস্থ হয়ে ওঠাই তার কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। আইনগত বিষয়গুলো পুলিশ দেখবে বলে জানান তিনি।

সারাবাংলা/এমএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন