বুধবার ১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ইং , ২৯ কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৫ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

‘গ্যাসের দাম বাড়িয়ে জনগণকে পিষে ফেলার চেষ্টা করছে সরকার’

জুলাই ২, ২০১৯ | ৩:২১ অপরাহ্ণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: সরকার পেট্রোবাংলার কাছে প্রাপ্য বকেয়া ২০ হাজার কোটি টাকা ভ্যাট আদায়ে তৎপর নয়, বরং গ্যাসের দাম বাড়িয়ে জনগণকে পিষে ফেলার চেষ্টা করছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি’র যুগ্ন মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (২ জুলাই) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে ‘জাতীয়তাবাদী চালক দল’ আয়োজিত মানববন্ধনে এই মন্তব্য করেন তিনি।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেন, ‘বিশ্ব বাজারে যখন গ্যাসের দাম কমছে তখন সরকার গ্যাসের দাম বাড়াচ্ছে। এবারই প্রথম নয়, দশ বছরে সরকার গ্যাসের দাম সাত দফা বাড়ালো। অন্যদিকে দেশের সরকারি গ্যাস বিতরণ প্রতিষ্ঠানগুলো লাভজনক অবস্থানে রয়েছে। এই ক্ষেত্রে সরকার কোটি কোটি টাকা রাজস্ব হারালেও সেদিকে ভ্রুক্ষেপ নেই। জনগণকে করের বোঝা চাপিয়ে দিয়ে সরকার অসাধু ব্যবসায়িদের পকেট ভরাচ্ছে।’

সবকিছুতে ভ্যাট বাড়ানো সরকারের অনৈতিক সিদ্ধান্ত মন্তব্য করে তিনি আরও বলেন, ‘মোবাইলে ১০০ টাকা রিচার্জ করলে ২৭ টাকা সরকারের পকেটে চলে যাচ্ছে, সরকার গ্যাসের দাম বাড়িয়েছে। অন্যান্য জিনিসের দাম দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। আমরা এই বাজেটকে প্রত্যাহার করছি এবং গ্যাসের দাম অবিলম্বে সহনীয় পর্যায়ে আনার দাবি জানাচ্ছি।’

অন্যথায় এই লুটেরা ও স্বৈরাচারী সরকারকে গণ আন্দোলনের মাধ্যমে পতন ঘটানো হবে বলে হুঁশিয়ার করেন তিনি।

জাতীয়তাবাদী চালক দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি জসিম উদ্দিন কবীর বলেন, ‘জনগণের উপর চাপিয়ে দেওয়া লুটেরা সরকারের এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে আমরা মানববন্ধন করছি এবং আমরা এই আন্দোলন অব্যাহত রাখবো। এই ভোট ডাকাতির সরকার জনগণের স্বার্থ আমলে না নিয়ে রাঘব বোয়ালদের সুবিধা দিচ্ছে, যা একটি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে চলতে পারে না। আমরা ১৬ কোটি মানুষের স্বার্থে আন্দোলন চালিয়ে যাবো।’

এ সময় অবৈধ গ্যাস লাইন বিরতণকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছেন তিনি ।

মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট এনামুল হক সেলিম, চালক দলের সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান মিয়াসহ অন্যান্য নেতারা।

সারাবাংলা/ওএম/এমও

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন