মঙ্গলবার ২৩ জুলাই, ২০১৯ ইং , ৮ শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৯ জিলক্বদ, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

দেশজুড়ে বৃষ্টির ঘনঘটা

জুলাই ১১, ২০১৯ | ১২:৪৫ অপরাহ্ণ

সিরাজুম মুনিরা, সিনিয়র নিউজরুম এডিটর

বেশ কয়েকদিন পর সমুদ্রবন্দর থেকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত তুলে নেওয়া হয়েছে। তবে আবহাওয়ার যে খুব একটা পরিবর্তন হয়েছে সেইটা বলা যাচ্ছে না। দেশের উপকূলীয় অঞ্চল ও পার্বত্য জেলাগুলোতে বৃষ্টি পড়ছে তো পড়ছেই।

বিশেষ করে চট্টগ্রামে তো রীতিমতো জলাবদ্ধতা তৈরি হয়েছে। সঙ্গে আছে ভোগান্তি। বিষয়টা এমন যে পায়ের নিচেও পানি, মাথার ওপরেও পানি।

অবিরাম বৃষ্টিতে রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি আর বান্দরবানে পাহাড়ধসের আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন সেখানকার মানুষ। ভরে উঠছে আশ্রয়কেন্দ্রগুলো।

আর এদিকে, রাজধানীর আকাশ গত কয়েকদিনের মতোই গোমড়া মুখে বসে আছে। মাঝে মাঝে ঝরে পড়ছে বৃষ্টি। কখনো তা টিপটিপ আবার কখনো একটু জোরে। কখনো বৃষ্টির পানিতে শরীর ভিজে যাচ্ছে, আবার কখনো যেন তুষার কণার মতো উড়ে যাচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

তবে যে রকম বৃষ্টিই হোক না কেন, বর্তমান তাপমাত্রা যাই দেখাক না কেন, গরম বোধটা কিন্তু কমছে না। বাতাসে আদ্রতার পরিমাণ এতো বেশি যে, বৃষ্টির মধ্যেও হাঁসফাঁস লাগছে।

আবহাওয়া অধিদফতর বলছে, মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের সক্রিয় রয়েছে ও উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।

দেশের রংপুর, ময়মনসিংহ, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং রাজশাহী, ঢাকা ও খুলনা বিভাগের অনেক জায়গায় দমকা হাওয়া আর বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও ভারী বৃষ্টির কথাও বলা হয়েছে। সেই ভারী বৃষ্টি কিন্তু চট্টগ্রাম আর পার্বত্য চট্টগ্রামে চলছেই।

অ্যাকুওয়েদার বলছে, রাজধানীতেও সারাদিন মেঘলা আকাশ থাকবে, বৃষ্টিও হবে। কবে নাগাদ এই পরিস্থিতির উন্নতি হবে সেটা এখনো বলা যাচ্ছে না।

সারাবাংলা/এসএমএন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন