মঙ্গলবার ২৩ জুলাই, ২০১৯ ইং , ৮ শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৯ জিলক্বদ, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

২০৫০-এ লন্ডন পাবে মাদ্রিদের রূপ, মস্কো সোফিয়ার

জুলাই ১১, ২০১৯ | ১:০৭ অপরাহ্ণ

পরিবেশ ও জলবায়ু ডেস্ক

২০৫০ সাল নাগাদ বিশ্বের দেশে দেশে শহরে শহরে জলবায়ুর চিত্র পাল্টে যাবে। মাদ্রিদের আজ যে অবস্থা তেমনটা হয়ে যাবে লন্ডনের দশা। আর প্যারিস রূপ নেবে ক্যানবেরার। স্টকহোম হবে বুদাপেস্ট, আর মস্কো পাল্টে যাবে সোফিয়ার রূপে।

নতুন এক জলবায়ু বিশ্লেষণ এমনটাই বলছে। বুধবার এনিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে সংবাদমাধ্যমগুলো খবর দিচ্ছে। তাতে বলা হচ্ছে পরিবর্তনগুলো আরও নাটকীয় রূপে ধরা দেবে বিশ্বের মানুষের কাছে। বিশেষ করে গ্রীস্মমণ্ডলীয় শহরগুলোতে অধিবাসীরা এমন এক পরিস্থিতির মুখে পড়বেন যা হয়ে উঠবে অসহনীয়।

কুয়ালালামপুর, জাকার্তা, সিঙ্গাপুর আবহাওয়াজনিত চরম দুর্দশা দেখবে। খরায় জনজীবন হয়ে উঠবে অতীষ্ঠ।

প্লোস ওয়ানে প্রকাশিত প্রতিবেদটির মূল গবেষণা করেছেন ইটিএইচ জুরিখ নামের একটি সংস্থার বিজ্ঞানীরা। আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা এএফপি এ খবরটি দিয়েছে। এতে বলা হয়েছে গবেষকরা বিশ্বের ৫২০টি প্রধান প্রধান শহরের জলবায়ু সংক্রান্ত অন্তত ১৯টি নিয়ামক যাচাই করে এসব সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন।

বিজ্ঞাপন

বিশ্বের এক শহরের সঙ্গে অন্য শহরের জলবায়ু ও আবহাওয়াগত মিল ধরে ধরে এই গবেষণা চালিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। আর তাতেই এই ভয়াবহ ফল বেরিয়ে এসেছে।

উত্তর গোলার্ধের শহরগুলোতে ২০৫০ সাল নাগাদ যে আবহাওয়াগত পরিবর্তন আসবে তা হবে যাবে এখনকার বিষুবরেখা থেকে এক হাজার কিলোমিটার দক্ষিণের শহরগুলোর মতো। বিষুব রেখার কাছাকাছি শহরগুলোতে ব্যাপক উষ্ণায়ন হয়তো হবে না কিন্তু এসব অঞ্চলের বাসিন্দারা টানা খরার মুখেও যেমন পড়বে, তেমনি টানা বৃষ্টিপাতেও অতীষ্ঠ হতে থাকবে।

মোটের ওপর বিশ্বের অন্তত ৭৭ভাগ শহরের বাসিন্দারা বড় ধরনের জলবায়ুগত পরিবর্তনের মুখে পড়বে। ইউরোপের গ্রীস্মগুলো আরও তপ্ত আর শীতগুলোতেও গরম অনুভূত হতে থাকবে। ধারনা করা হচ্ছে এই অঞ্চলে সার্বিকভাবে তাপমাত্রা ৩.৫ থেকে ৪.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত বেড়ে যাবে। এবং তা সব ঋতুর জন্যই প্রযোজ্য হবে।

সারাবাংলা/এমএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন