রবিবার ১৯ জানুয়ারি, ২০২০ ইং

খেলা চালাবে রোবট আম্পায়ার

জুলাই ১৪, ২০১৯ | ৯:২২ অপরাহ্ণ

বিচিত্রা ডেস্ক

আম্পায়ারের সিদ্ধান্তের উপর অনেকটাই নির্ভর করে খেলার মোড়। তাঁর একটা ভুল সিদ্ধান্তে কপাল পুড়তে পারে লড়তে থাকা দলগুলোর যেকোন একটির। আর কোনো মানুষই যেহেতু ভুলের ঊর্ধ্বে নন, তাই বিভিন্ন খেলায় আম্পায়ারিংয়ের সহায়ক হিসেবে প্রযুক্তি জায়গা দখল করে নিচ্ছে। ঘোষণা দেওয়ার চার মাসের মাথায়ই বেসবল মাঠে নামলো রোবট আম্পায়ার।

বিজ্ঞাপন

এই প্রথম বেসবলের আটলান্টিক লীগে আম্পায়ারিংয়ের জন্য রোবটকে কাজে লাগানো হচ্ছে। আমেরিকার সবচেয়ে বড় বিনোদন মাধ্যম বেসবল মাঠে আরও নির্ভুল সিদ্ধান্ত গ্রহণের প্রয়োজনীয়তা থেকে এই সংযোজন।

ডপ্লার ভিত্তিক এই প্রযুক্তি ইতোমধ্যেই ৩০টি প্রধান বেসবল লীগে ব্যবহার করা হচ্ছে। এ প্রযুক্তিতে ট্র্যাকম্যান রাডার সিস্টেমের মাধ্যমে নির্ধারণ করা যাবে যে ব্যাটার আদৌ ব্যাটে বল লাগাতে পেরেছেন কি না? সেই তথ্য এয়ারপিসের মাধ্যমে খেলা পরিচালনাকারী আম্পায়ারের কাছে পৌছে যাবে।

বিজ্ঞাপন

এ প্রযুক্তি এখনই মাঠের আম্পায়ারকে সম্পূর্ণভাবে প্রতিস্থাপিত করতে পারছে না। তবে তাদের সিদ্ধান্তগুলো আরও নির্ভুল করার ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখছে। মাঠের আম্পায়ার  চাইলে ট্র্যাকম্যান কল নাও নিতে পারবেন। এই সিস্টেম বলের সুইং ধরতে পারবে না।  তবে বলতে পারবে ব্যাটার বলে আঘাত করতে পেরেছেন, না কি বল তাকে পরাস্ত করে গেছে।

একজন বেসবল আম্পায়ার ইএসপিএনকে জানিয়েছেন, এই সিস্টেমকে শতভাগ কার্যকর করতে হলে আমাদেরই খেয়াল রাখতে হবে যে বলটি পিচ করেছে কি না? কারণ যদি সিস্টেমটিে কাজ না করে তাহলে বলা সম্ভব হবে না যে বলটি আদৌ পিচ করেছিল কি না?

আটলান্টিক লীগে পরীক্ষামূলকভাবে যে ফিচারগুলো চালু করা হয়েছে রোবট আম্পায়ার তাদের মধ্যে একটি। যদি সবকিছু ঠিক থাকে, তাহলে বড় আসরে এই প্রযুক্তিগুলো সামনে নিয়ে আসা হবে। সেক্ষেত্রে কিছু পরিবর্তন যেমন. মাউন্ডের দূরত্ব পরিমাপ, হোম প্লেট নির্ধারণ এবং পিচার হিসেবে ন্যূনতম তিনজন ব্যাটার থাকতে পারার বিষয়গুলো সংশোধন করতে হবে।

টেক ক্রাঞ্চ অবলম্বনে

সারাবাংলা/একেএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন