রবিবার ১৮ আগস্ট, ২০১৯ ইং , ৩ ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৬ জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

এরশাদের জানাজায় ৫ লাখ মানুষ অংশ নেবে, আশা নেতাকর্মীদের

জুলাই ১৫, ২০১৯ | ৭:৩৩ অপরাহ্ণ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

রংপুর থেকে: রংপুরে আগামীকাল মঙ্গলবার সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের জানাজায় কমপক্ষে ৫ থেকে ৭ লাোকের সমাগম হবে বলে আশা করছেন জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা। তারা বলছেন, এত লোকের দাবির মুখে প্রিয় নেতার মরদেহ নিয়ে ঢাকায় যেতে পারবেন না কেউ।

এদিকে, সোমবার (১৫ জুলাই) সকাল থেকে রংপুর শহরে আগামীকালের জেলা স্কুল মাঠে এরশাদের জানাজায় শরীক হওয়ার জন্য মাইকিংয়ের মাধ্যমে দলের পক্ষ থেকে আহ্বান করা হচ্ছে।

এছাড়া রংপুর শহরের বাইরে এবং বাকি সাত জেলা ও উপজেলায় বিভিন্ন পয়েন্টে মাইকিংয়ের মাধ্যমে তার মৃত্যুর মাগফিরাত কামনা এবং এরশাদের জানাজায় শরিক হওয়ার জন্য আহ্বান জানানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন জাতীয় পার্টির বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা।

রংপুর জাতীয় পার্টির সাংগাঠনিক সম্পাদক মুন্সি আব্দুল বারী সারাবাংলাকে বলেন, ‘এরইমধ্যে দুরের জেলা যেমন পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, দিনাজপুর, বগুড়া রাজশাহী, সিরাজগঞ্জ, পাবনা, নাটোর রাজশাহীর লোকজন আসতে শুরু করেছে। বাকি জেলাগুলোর নেতাকর্মী ও সর্বস্তরের লোকজন আগামীকাল সকালের মধ্যেই চলে আসবেন। জেলাগুলোতে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ করা হচ্ছে। শেষ দর্শন ও প্রিয় নেতাকে শেষ বিদায় জানাতেই সর্বস্তরের লোকজন অধীর আগ্রহের সঙ্গে অপেক্ষা করছেন।’

বিজ্ঞাপন

তিনি আরও বলেন, ‘বিপুল সংখ্যক লোক যাতে জানাজায় অংশ নিতে পারে সেজন্য রংপুর জেলা স্কুল মাঠসহ, ক্রিকেট গার্ডেন, কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠ ও পুলিশ লাইন্স মাঠ প্রস্তুত রাখা হয়েছে। রোদ-বৃষ্টি উপেক্ষা করে লোকজন প্রিয় নেতাকে দেখতে আসবেন কাজেই তাদের সুব্যবস্থা করা হবে। এজন্য দলীয় নেতাকর্মীদের প্রস্তুত রাখা হয়েছে।’

অন্যদিকে, রংপুর শহরের প্রায় প্রত্যেক মোড়ে মোড়ে মাইক লাগিয়ে সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে কুরআন তিলাওয়াত করা হচ্ছে।

এরশাদকে রংপুরেই সমাহিত করার দাবি, প্রয়োজনে আন্দোলন

এর মধ্যে লালবাগ, পার্কের মোড়, সাতমাথা, মাহিগঞ্জ, জাহাজ কোম্পানি মোড়, সেন্ট্রাল রোড দলীয় কার্যালয়, গ্রান্ডহোটেল মোড়, সেনপাড়া, মুলাটোল, মডার্ন মোড়, দর্শনা মোড়সহ বিভিন্ন এলাকায় দলীয় ও সাধারণ জনগণের পক্ষ হতে কুরআন তেলাওয়াতের আয়োজন করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: 
শেষবারের মতো দলীয় কার্যালয়ে এরশাদ
‘পল্লী নিবাস প্রাঙ্গণে সমাধি চেয়েছিলেন এরশাদ’
এরশাদকে ‘সেনাশাসক ও স্বৈরাচার’ পরিচয়েই চেনে বিশ্ব গণমাধ্যম

সারাবাংলা/ইউজে/আরএইচএ/এমও

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন