বুধবার ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ২৭ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৩ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

ইংলিশরা পেল ৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার

জুলাই ১৫, ২০১৯ | ৯:২২ অপরাহ্ণ

বিশ্বকাপ ডেস্ক

বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি ঘোষিত প্রাইজমানির পরিমাণ ছিল ১০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। বিশ্বকাপ জয়ী দল ইংল্যান্ডকে প্রাইজমানি হিসেবে দেওয়া হয়েছে ৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৩৩ কোটি ৮৯ লাখ ৬৮ হাজার টাকা।

বিজ্ঞাপন

রানার্স আপ নিউজিল্যান্ড পেয়েছে ইংলিশদের ঠিক অর্ধেক ২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। বাংলাদেশি টাকায় যার পরিমাণ দাঁড়ায় প্রায় ১৬ কোটি ৯৪ লাখ ৮৪ হাজার টাকা।

গ্রুপ পর্বের মোট ম্যাচ ছিল ৪৫টি। সেমি ফাইনাল আর ফাইনাল মিলে ম্যাচ হয়েছে মোট ৪৮টি। প্রতি ম্যাচে বোনাস রাখা হয় ৩৩ লাখ টাকা। গ্রুপ পর্বের তলানির দল আফগানিস্তান কোনো ম্যাচই জেতেনি। তারপরও বিশ্বকাপে অংশ নেওয়ার জন্য আফগানরা পেয়েছে ১ লাখ ডলার বা প্রায় ৮৪ লাখ টাকা।

গ্রুপ পর্বের প্রতিটি ম্যাচের জন্য ছিল পৃথক প্রাইজমানির ব্যবস্থা। গ্রুপ পর্বের প্রতিটি ম্যাচ জিতে প্রতিটি দেশ পায় ৪০ হাজার মার্কিন ডলার। বাংলাদেশি টাকায় যার পরিমাণ দাঁড়ায় প্রায় ৩৩ লাখ ৮৯ হাজার টাকা।

বিজ্ঞাপন

গ্রুপ পর্ব পার করে সেমি ফাইনালে উঠায় ভারত, নিউজিল্যান্ড, ইংল্যান্ড আর অস্ট্রেলিয়াকে দেওয়া হচ্ছে ১ লাখ মার্কিন ডলার বা প্রায় ৮৪ লাখ ৭৪ হাজার টাকার সমপরিমাণ।

সেমি ফাইনালের বাধা উৎরাতে না পারা দল ভারত আর অস্ট্রেলিয়ার পকেটে পৌঁছে গেছে ৮০ হাজার মার্কিন ডলার। বাংলাদেশি টাকায় পরিমাণ দাঁড়ায় প্রায় ৬৭ লাখ ৭৯ হাজার।

গ্রুপ পর্বের প্রতি ম্যাচে জয়ীদের প্রদান করা প্রাইজমানির পরিমাণ গত বিশ্বকাপের তুলনায় প্রায় ৫ হাজার মার্কিন ডলার কম ছিল। তবে, গ্রুপ পর্বের প্রাইজমানির পরিমাণ কমলেও এবার বেড়েছিল অন্যান্যদের প্রাইজমানির পরিমাণ।

২০১৭ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির শেষ চারের দল হিসেবে বাংলাদেশ পেয়েছিল ৩ কোটি ৬৪ লাখ টাকার প্রাইজমানি।

সারাবাংলা/এমআরপি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন