বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং , ৩ আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৮ মুহাররম, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

শিশুর গোপনাঙ্গ স্পর্শ: কেন শাস্তি হয়নি চীনা নাগরিকের?

জুলাই ২৬, ২০১৯ | ১১:০৪ পূর্বাহ্ণ

বিচিত্রা ডেস্ক

অভিযোগটি উঠেছে চীনা নাগরিক রেন চ্যাংফুর (৭৯) বিরুদ্ধে। গত আগস্টে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের একটি বিনোদন কেন্দ্রে ‘আদর করে’ একটি ছেলে শিশুর  গোপনাঙ্গ স্পর্শ করেন তিনি। তখন পুলিশ তাকে আটক করে। তবে সম্প্রতি আদালত বিষয়টিকে ‘চীনা সংস্কৃতির’ অংশ উল্লেখ করে রেন চ্যাংফুকে মুক্তি দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার (২৬ জুলাই) সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে একথা বলা হয়।

নিউজিল্যান্ড ও চীনের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এই ঘটনা আলোচনার জন্ম দিয়েছে। নিউজিল্যান্ডের স্থানীয় পত্রিকাগুলো জানায়, ওই শিশু এবং তার বাবা পোশাক পরিবর্তন করছিলেন। রেন চ্যাংফু তাদের কাছে যান এবং মজা করতে করতে শিশুটির গোপনাঙ্গ স্পর্শ করেন। শিশুটির বাবা বিষয়টি ভালো ভাবে না নিয়ে পুলিশ ডেকে রেন চ্যাংফুকে আটক করান।

চীনা এই নাগরিক নিউজিল্যান্ডে এসেছিলেন ২০০৯ সালে। তিনি আদালতকে জানান, শিশুদের গোপনাঙ্গ স্পর্শ করে ‘আদর’ করাটা তাদের সংস্কৃতিতে স্বাভাবিক। নিউজিল্যান্ডে তিনি ‘সংস্কৃতির বিভ্রাটে’ দোষী সাব্যস্ত হবেন তা ভাবেননি। চীনে ওই ছেলের বয়সের একটি নাতি আছে তার। তাকে তিনি ‘মিস’ করেন।

বৃদ্ধ রেন চ্যাংফু’র ব্যাখ্যা মেনে নেয় ভুক্তভোগী শিশুটির বাবা ও আদালত। তবে রেন চ্যাংফু বিষয়টিকে তার সংস্কৃতি বলে চালিয়ে নিষ্কৃতি পেলেও চীনারা কিন্তু খুব একটা তাকে সমর্থন দিচ্ছেন না। চীনাদের মতে ওটা কয়েক প্রজন্মের আগের সংস্কৃতি যা আর প্রচলিত নয়। শিশুদের ব্যক্তিগত নিরাপত্তা নিয়ে এখন চীনারাও নানাভাবে চিন্তা করে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এনএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন