বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং , ৩ আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৮ মুহাররম, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

অনূর্ধ্ব-২১ হকির উন্মুক্ত ট্রায়ালে ব্যাপক সাড়া

আগস্ট ১, ২০১৯ | ৮:২৫ অপরাহ্ণ

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট

আগামী বছর বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া জুনিয়র এশিয়া কাপ সামনে রেখে শুরু হলো অনূর্ধ্ব-২১ হকি দলের উন্মুক্ত ট্রায়াল। প্রথম দিনেই ট্রায়ালে মিলেছে ব্যাপক সাড়া। দ্বিতীয় বিভাগ হকি লিগের বাছাইকৃত ৫১ জন ও বিভিন্ন সার্ভিসেস দলসহ শতাধিক খেলোয়াড় অংশ নিয়েছেন উন্মুক্ত ট্রায়ালে।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (১ আগস্ট) অংশগ্রহণকারী খেলোয়াড়রা কোচ মামুন-উর-রশীদের কাছে রিপোর্ট করেন। প্রথম দিন সৌজন্য স্বাক্ষাতে, খেলোয়াড়দের প্রতি ট্রায়ালে নিজেদের সেরাটা দেয়ার আহ্বান জানান বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক একেএম মমিনুল হক সাঈদ। আর জ্যেষ্ঠ সহ সভাপতি আব্দুর রশীদ শিকদার জানান, প্রতিভা যাচাইয়ে এই খেলোয়াড়দের যথেষ্ট সময় দেয়া হবে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন নির্বাহী কমিটির অন্য কর্মকর্তারা।

এই টুর্নামেন্ট ঘিরে ফেডারেশনের সহ সভাপতি সাজেদ এ.এ. আদেলকে চেয়ারম্যান করে গঠন করা হয়েছে ৪ সদস্যের অন্তর্বতীকালীন নির্বাচক কমিটি। নির্বাচক কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন কামরুল ইসলাম কিসমত (সদস্য সচিব), খাজা তাহের লতিফ মুন্না (সদস্য), রফিকুল ইসলাম কামাল (সদস্য)।

বয়সভিত্তিক দল গঠন সহ জাতীয় দল গঠনে এই খেলোয়াড়েরাই হতে পারে দেশের হকির ভবিষ্যত পতাকাবাহী, এমনটি জানালেন ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মমিনুল হক সাঈদ। তিনি জানান, ‘এরাই ভবিষ্যত হকির খেলোয়াড়। তারাই একসময় জাতীয় দলকে প্রতিনিধিত্ব করবে। আর সামনে যুব বিশ্বকাপেও খেলবে বাংলাদেশের হয়ে। তাদের রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব ফেডারেশন নেবে।'

বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশের হকির জন্য এশিয়ান হকি ফেডারেশনের মাধ্যমে অভিজ্ঞ কোচ আনারও চেষ্টা করা হচ্ছে বলে জানান ফেডারেশনের সিনিয়র সহ সভাপতি আব্দুর রশিদ শিকদার, 'দলটাকে ভালোভাবে প্রস্তুত করার জন্য আমরা অভিজ্ঞ কোচ আনার চেষ্টা করছি। আমাদের হাতে সময় আছে। সবাইকে নিয়ে বসে চূড়ান্ত করা হবে কোচ।'

ট্রায়াল চলবে ৭ আগস্ট পর্যন্ত। ট্রায়াল থেকে বাছাইকৃত ৩৫ খেলোয়াড়ের সাথে প্রাথমিক স্কোয়াডে সরাসরি যোগ দেবেন জাতীয় দলের ২৫ খেলোয়াড়। ৭ আগস্ট পর্যন্ত চলা এই ট্রায়ালে কোচের দায়িত্বে থাকবেন মামুন-উর-রশীদ, সহকারী কোচ আলমগীর আলম ও গোলরক্ষক কোচ রাসেল খান বাপ্পি। এখান থেকে বাছাই করা হবে সেরা ৬০ জন। যাদের দেয়া হবে বছর জুড়ে প্রশিক্ষণ।

সারাবাংলা/এমআরপি/জেএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন