রবিবার ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং , ৩১ ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৫ মুহাররম, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

শাকিবের প্রজেক্টর মেশিন মানে একই, খরচে কম

আগস্ট ৬, ২০১৯ | ৩:৫৯ অপরাহ্ণ

এন্টারটেইনমেন্ট করেসপন্ডেন্ট

ঢাকাই সিনেমার সুপারস্টার শাকিব খান এবার নেমেছেন সিনেমা হলে প্রজেক্টর এবং সার্ভার বসানোর কাজে। এরই মধ্যে নাকি সাতটি প্রেক্ষাগৃহে বসানো হয়েছে প্রজেক্টর ও সার্ভার। বিষয়টি সারাবাংলাকে নিশ্চিত করেছেন প্রদর্শক সমিতির উপদেষ্টা সুদীপ্ত কুমার দাস।

বিজ্ঞাপন

সুদীপ্ত কুমার দাস সারাবাংলাকে বলেন, ‘এরই মধ্যে ঢাকার শাহীন, খুলনার শঙ্খ সিনেমা হলে শাকিব খানের প্রতিষ্ঠান এসকে বিগস্ক্রিন থেকে প্রজেক্টর ও সার্ভার বসানো হয়েছে। এই দুটি হলের নামই এখন মনে পড়ছে।’


আরও পড়ুন :  মোদি সরকারের নিরাপত্তা উপদেষ্টাকে নিয়ে অক্ষয়ের সিনেমা


তিনি জানান, এসকে বিগস্ক্রিনের পরিকল্পনা ঈদের আগে আরও কিছু হলে প্রজেক্টর মেশিন এবং সার্ভার বসানো। মেশিনগুলো থেকে পাওয়া ফলাফলের ওপর ভিত্তি করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবেন তারা।

গত রোববার (৪ আগস্ট) প্রদর্শক সমিতিকে চিঠির মাধ্যমে প্রেক্ষাগৃহে প্রজেক্টর ও সার্ভার বসানোর আহ্বান জানানোর জন্য বলেন শাকিব খান। তারই প্রেক্ষিতে সোমবার (৫ আগস্ট) রাতে অনুষ্ঠিত হয় প্রদর্শক সমিতির কার্যনির্বাহী পরিষদের সভা। সেখানে সিদ্ধান্ত হয় সমিতির পক্ষ থেকে হল মালিকদের কাছে শাকিব খানের আহ্বান পৌঁছে দেওয়া হবে। সেই লক্ষ্যে মঙ্গলবার (৬ আগস্ট) সংবাদ সম্মেলন করেন প্রদর্শক সমিতির উপদেষ্টা সুদীপ্ত কুমার দাস ও অন্যান্য নেতারা। এসকে বিগস্ক্রিনের পক্ষেও উপস্থিত ছিলেন একজন। তবে সেই সভায় উপস্থিত ছিলেন না সমিতির সভাপতি ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ।

বিজ্ঞাপন

শাকিব খানের প্রজেক্টর ও সার্ভার হলে নিতে চাইলে কেমন খরচ হবে? জানতে চাইলে এসকে বিগ স্ক্রিনের অন্যতম ডিরেক্টর মো. ইকবাল বলেন, ‘প্রজেক্টর ও সার্ভার নিতে কেমন খরচ লাগবে তা এখনো চূড়ান্ত হয়নি। আলোচনার মাধ্যমে এই বিষয়গুলো নিয়ে দ্রুতই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

অন্যদিকে সুদীপ্ত কুমার দাস বলেন, ‘এসকে বিগ স্ক্রিন প্যানাসনিকের প্রজেক্টর নিয়ে এসেছে। যার লুমিনেন্স ৬ হাজার থেকে ৮ হাজার। তবে এর খরচ জাজের মেশিন খরচের চেয়ে কম বলে জেনেছি।’

জাজ মাল্টিমিডিয়া থেকে ৩১২টি হলে বসানো প্রজেক্টর ও সার্ভারের লুমিনেন্স ৬ হাজার। এতে করে ধারণা করা যায় যে, এসকে বিগ স্ক্রিনের মাধ্যমে সিনেমার প্রক্ষেপণে তেমন কোনো উন্নতি না হলেও খরচের দিক থেকে কিছুটা রক্ষা পেতে পারেন প্রযোজকরা। আর প্রযোজকরা জানিয়ে দিয়েছেন, নিয়ম অনুযায়ী হল মালিকদের থাকতে হবে নিজস্ব প্রজেক্টর।


আরও পড়ুন :  

.   শাকিব খানের ছবির বিষয়ে কিছু জানেন না জয়দ্বীপ মুখার্জি

.   ঈদে ‘আসেন মিষ্টিমুখ করি’

.   মুখ ফসকে বলা ভুলের জন্য ক্ষমা চাইলেন সোনাক্ষী সিনহা


সারাবাংলা/পিএ/আরএসও/পিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন