বিজ্ঞাপন

২১তম রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ

February 7, 2018 | 12:39 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

বিজ্ঞাপন

ঢাকা : বাংলাদেশের ২১তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন মো. আবদুল হামিদ। নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা। তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে আবদুল হামিদকে দেশের ২১তম রাষ্ট্রপতি হিসাবে ঘোষণা করেন।

এর মধ্য দিয়ে টানা দ্বিতীয় দফায় রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হলেন আবদুল হামিদ।

বিজ্ঞাপন

আগের মেয়াদ শেষ হওয়ায় গত ২৫ জানুয়ারি রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। তফসিল অনুযায়ী নির্বাচনের সকল প্রক্রিয়া ও আনুষ্ঠানিকতা শেষ করেই এ ঘোষণা দেওয়া হলো।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন, যেহেতু রাষ্ট্রপতি পদে আর কোনও মনোনয়ন পড়েনি সে কারণে মো. আবদুল হামিদকে সরাসরি নির্বাচিত ঘোষণা করা হলো। তিনিই ছিলেন একমাত্র বৈধ প্রার্থী।

বিজ্ঞাপন

আবদুল হামিদকে ২১ তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে গেজেট প্রকাশ করেছে নির্বাচন কমিশন। ইসির ভারপ্রাপ্ত সচিব হেলালুদ্দীন আহমেদ স্বাক্ষরিত গেজেটটি বুধবার সন্ধ্যায় প্রকাশ করা হয়।

২১তম রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ

বিজ্ঞাপন

 

রাষ্ট্রপতি নির্বাচন আইন ১৯৯১ এর ৭ ধারা অনুযায়ী রিটার্নিং কর্মকর্তা নিজেই এই ঘোষণার এখতিয়ার রাখে। এই নির্বাচনে সিইসি নিজেই রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্ব পালন করেন।

বিজ্ঞাপন

বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় চার নির্বাচন কমিশনারকে সঙ্গে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করতে যাবেন বলেও জানান সিইসি।

আগামী ২৩ এপ্রিল নতুন রাষ্ট্রপতির শপথ হতে পারে, এমন একটি সম্ভাব্য তারিখের কথাও জানান তিনি।

নবম জাতীয় সংসদের তৎকালীন স্পিকার মো. আবদুল হামিদ ২০১৩ সালের ২৪ এপ্রিল প্রথম মেয়াদে রাষ্ট্রপতি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। আগামী ২৩ এপ্রিলই তার পাঁচ বছরের মেয়াদ শেষ হচ্ছে।

২০১৩ সালের ২৪ এপ্রিল রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব নিয়েছিলেন মো. আবদুল হামিদ।

আবদুল হামিদ ১৯৪৪ সালের ১ জানুয়ারি কিশোরগঞ্জ জেলার মিঠাইমন উপজেলায় জন্মগ্রহণ করেন৷ ১৯৭০ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত তিনি মোট ৮ বার আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

এরপর ৭ম জাতীয় সংসদে প্রথমে ডেপুটি স্পিকার এবং পরে স্পিকারের দায়িত্ব পালন করেন। আর ৯ম জাতীয় সংসদের শুরুতেই তিনি স্পিকারের দায়িত্ব পান।

সারাবাংলা/জিএস/একে

 

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন