বৃহস্পতিবার ২২ আগস্ট, ২০১৯ ইং , ৭ ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২০ জিলহজ, ১৪৪০ হিজরি

বিজ্ঞাপন

প্রথম আলো সম্পাদককে চট্টগ্রামে অবাঞ্ছিত ঘোষণা

আগস্ট ৮, ২০১৯ | ৪:৫৩ অপরাহ্ণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো : হাইকোর্টে রিট করে সংবাদকর্মীদের নবম ওয়েজবোর্ড আটকে দেওয়ায় দৈনিক প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমানকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছেন চট্টগ্রামের সাংবাদিক নেতারা।

নিউজপেপারস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (নোয়াব) সভাপতি হিসেবে আদালতে রিট আবেদনটি করেছিলেন, যার পরিপ্রেক্ষিতে আদালত নবম ওয়েজবোর্ডের গেজেট প্রকাশের ওপর দুই মাসের স্থিতাবস্থা জারি করেছেন।

এর প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার (০৮ আগস্ট) দুপুরে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের (সিইউজে) এক সমাবেশ থেকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়েছে। দেশের শীর্ষস্থানীয় এই গণমাধ্যম সম্পাদকসহ নোয়াব সংশ্লিষ্টদের ‘চট্টগ্রামে যেখানেই দেখা যাবে সেখানেই প্রতিহত করা হবে’ বলেও ঘোষণা দিয়েছেন সাংবাদিক নেতারা।

সমাবেশে সিইউজের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাঈনুদ্দীন দুলাল বলেন, ‘সাংবাদিকরা অতীতে আন্দোলন করে তাদের অধিকার আদায় করে নিয়েছেন। নোয়াব সাংবাদিকদের অধিকার থেকে বঞ্চিত করতে আদালতের আশ্রয় নিয়েছেন। আশা করি আদালত সাংবাদিকদের অধিকারের বিষয়ে আন্তরিক থাকবেন।’

বিজ্ঞাপন

চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সভাপতি আলী আব্বাস বলেন, ‘সাংবাদিকদের অধিকার আদায়ে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব সবসময় চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সঙ্গে আন্দোলন-সংগ্রামে এক হয়ে কাজ করবে।’

বিএফইউজের সহ-সভাপতি রিয়াজ হায়দার বলেন, ‘নোয়াব সভাপতি মতিউর রহমান এক-এগারোর সময় দেশ ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করেছেন। এখনও ষড়যন্ত্র করছেন। তাকে আইনের আওতায় এনে বিচারের মুখোমুখি করতে হবে।’

সিইউজের সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস বলেন, ‘নবম ওয়েজবোর্ড ও সাংবাদিকদের অধিকার নিয়ে নোয়াব সভাপতি মতিউর রহমান ষড়যন্ত্র করছেন। সাংবাদিকদের অধিকার বঞ্চিত করার অপচেস্টার জন্য তাকে চট্টগ্রামে অবাঞ্চিত ঘোষণা করা হলো।’

সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সহ-সভাপতি শহীদ উল আলম ও বর্তমান যুগ্ম মহাসচিব মহসিন কাজী, সিইউজের সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আলী, যুগ্ম সম্পাদক সবুর শুভ, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক ম. শামসুল ইসলাম, বর্তমান প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আহমেদ কুতুব, টিভি ইউনিট প্রধান অনিন্দ্য টিটো, সিইউজের সদস্য প্রীতম দাশ।

সারাবাংলা/আরডি/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন