সোমবার ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ২ পৌষ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৮ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

মসজিদে হামলা রুখে দিয়েছিলেন এই সাবেক পাকিস্তানি এয়ারফোর্স অফিসার

আগস্ট ১৩, ২০১৯ | ৬:৪৯ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

নিউজিল্যান্ডের মতো নরওয়ের আল নূর মসজিদেও হতে পারত ম্যাসাকার। সেখানে নির্বিচারে গুলিতে প্রাণহানি থেকে গত ১০ আগস্ট সাধারণ মানুষকে বাঁচিয়েছেন নরওয়ে প্রবাসী পাকিস্তানের সাবেক এক এয়ারফোর্স অফিসার। মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) ডনের খবরে বলা হয়েছে ৬৫ বছর বয়সী এই সাহসী বৃদ্ধের নাম মোহাম্মদ রফিক। তিনি গত এক-দেড় বছর ধরে নরওয়েতে থাকছেন।

বিজ্ঞাপন

যখন বন্দুকধারী মসজিদে ঢুকে গুলি চালাতে শুরু করে সাহাসী রফিক এগিয়ে যান সবার আগে ওই যুবককে নিরস্ত্র করতে। এতে কিছুটা আহতও হয়েছেন তিনি।

রফিক বলেন, হঠাৎ আমি মসজিদের বাইরে গুলির শব্দ শুনি। একজন পিস্তল ও বন্দুক নিয়ে ভবনে প্রবেশ করে। সে রুমের অন্য দুজনকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আমি ছুটে গিয়ে তাকে জড়িয়ে ধরি ও অস্ত্র কেড়ে নিই। সে আমার চোখে আঙ্গুল ঢুকিয়ে দেয়।

ওই ঘটনা এখনো ভুলতে পারেননি বলেও জানিয়েছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

নরওয়ে পুলিশের বরাতে বলা হয় ওই যুবক শেতাঙ্গ আধিপত্যবাদী, ডানপন্থি ও অভিবাসীবিরোধী। এই হামলা চেষ্টাকে সন্ত্রাসী হামলা হিসেবেই দেখা হচ্ছে।

পুলিশ আসার আগেই রফিকের এই সাহসিকতায় মুগ্ধ স্থানীয় মুসল্লিরা। রফিকের কারণেই ঈদের আগে বড় ধরনের সহিংসতা থেকে নরওয়ে রক্ষা পেয়েছে। মসজিদে মুখপাত্র ওহেদ আহমেদ রয়টার্সকে বলেন, তারা কঠিন সাহস দেখিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এনএইচ

Advertisement
বিজ্ঞাপন

Tags: ,

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন