শুক্রবার ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ২৯ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৫ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

নির্ধারিত সময়েই শতভাগ কোরবানির বর্জ্য অপসারণ: সাঈদ খোকন

আগস্ট ১৩, ২০১৯ | ৭:৩৪ অপরাহ্ণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: প্রথমদিনের কোরবানির বর্জ্য নির্ধারিত ২৪ ঘন্টার মধ্যেই অপসারণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) বিকেল তিনটায় ডিএসসিসির নগর ভবনে কোরবানির বর্জ্য অপসারণ সংক্রান্ত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন।

ডিএসসিসির মেয়র সাঈদ খোকন বলেন, ‘প্রথম দিনের বর্জ্য অর্ধেকেই রাতের মধ্যে অপসারণ করা হয়েছিল। আমি নিজে গভীর রাত পর্যন্ত ফেসবুক লাইভ মনিটরিংয়ের মাধ্যমে বর্জ্য অপসারণ মনিটরিং করেছিলাম। এরপর আজ সকাল ৬টার মধ্যেই আমরা ৯৯ শতাংশ বর্জ্য অপসারণ করেছি। তখনও কোথাও কোথাও প্রথম দিনের বর্জ্য ছিল। সেগুলো সকাল ১০টা ১০ মিনিটের মধ্যেই অপসারণ করতে সক্ষম হয়েছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘এবার ডিএসসিসিতে হাটের সংখ্যা ছিল ১৭টি। যে কারণে বর্জ্যের সংখ্যাও একটু বেশি। কিন্তু এসব হাটের মধ্যে ১৪টি হাটের বর্জ্য অপসারণ করা হলেও কমলাপুর, মেরাদিয়া এবং শনির আখড়া- এই তিনটি হাটের বর্জ্য অপসারণ হয়নি শুধুমাত্র ইজারাদারদের অসহযোগিতার কারণে। তাই আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি তাদের জামানত বাজেয়াপ্ত করা হবে।’

বিজ্ঞাপন

মেয়র বলেন, ‘আজকেও ঈদের দ্বিতীয় দিনে যেসব পশু কোরবানি দেওয়া হবে সেগুলোর বর্জ্য রাতের মধ্যে সম্পূর্ণ অপসারণ করা হবে। অনেকে ঈদের তৃতীয় দিনও কোরবানি দিয়ে থাকেন। আমরা সেদিনের বর্জ্যও ওইদিন রাতেই অপসারণ করবো। ওই বর্জ্য সম্পূর্ণ অপসারণ করার মধ্য দিয়ে আমরা নগরবাসীকে একটি সুন্দর-পরিচ্ছন্ন নগর উপহার দিবো।’

এখনও কিছু গলিতে বর্জ্য দেখা যাচ্ছে কেনো? সাংবাদিকদের এমন এক প্রশ্নের জবাবে মেয়র বলেন, আমাদের ৫২ বাজারের ৫৩ গলির কোথাও না কোথাও হয়তো বর্জ্য থাকতে পারে। তাই আমরা যাতে সেগুলোও অপসারণ করতে পারি, সেজন্য ডিএসসিসির হটলাইন নম্বর ০৯৬১১০০০৯৯৯ এ কল দিন। আমাদের সদস্যরা আপনার সেই গলিতে পৌঁছে যাবে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসএইচ/ওএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন