শুক্রবার ২৩ আগস্ট, ২০১৯ ইং , ৮ ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২১ জিলহজ, ১৪৪০ হিজরি

বিজ্ঞাপন

দু’দিনের মধ্যেই চূড়ান্ত হবে সাকিব-তামিমদের কোচ!

আগস্ট ১৪, ২০১৯ | ১০:১১ অপরাহ্ণ

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট

গেল ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে আশানুরূপ ফল না পাওয়া প্রধান কোচসহ তিন কোচিং স্টাফকে ‘না’ দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এর মধ্যে ব্যাটিং ও বোলিং কোচ নিয়োগ দিয়েছে বিসিবি। স্টিভ রোডসের বিদায়ের পর বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের প্রধান কোচের পদটা ফাঁকা। সেই শূন্যস্থান ভরতে পারে দু’দিনের মধ্যেই।

ফাঁকা স্থানটা পূরণ করার লক্ষ্যে ঈদের মধ্যেও কাজ করে গেছে দেশের ক্রিকেটের সর্বোচ্চ অভিভাবক। মাঝে দক্ষিণ আফ্রিকান কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো এসে সাক্ষাৎকার দিয়ে গেছে। ঈদের পর নিউজিল্যান্ডের কোচ মাইক হেসনের সাক্ষাৎকার দেয়ার কথা ছিল।

গত ৭ আগস্ট ডোমিঙ্গো সাক্ষাৎকার দিয়ে গেছে ঢাকায়। ধানমন্ডির বেক্সিমকো কার্যালয়ে দেয়া তার প্রেজেন্টেশনে তুষ্ট ছিল বিসিবি। তবে, একজনেই বসে থাকতে চায় না বোর্ড। তাইতো কোচের দৌড়ে লিস্টে থাকা আরও চারজন জিম্বাবুয়ের গ্রান্ট ফ্লাওয়ার, ইংল্যান্ডের পল ফারব্রেস, নিউজিল্যান্ডের মাইক হেসন ও শ্রীলঙ্কার চন্ডিকা হাথুরুসিংহকে নিয়ে পরিকল্পনা আছে বোর্ডের।

এদিকে হ্যাভিয়েট হেসনকে ঘিরে ভারতের ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) আগ্রহ প্রকাশ করেছে। তাদের সংক্ষিপ্ত তালিকায় হেসনের নাম থাকায় বিসিবিও চিন্তায় পড়েছে। অবশ্য বিষয়টা নিয়ে দুই দিনের মধ্যে ইতি টানতে চলেছে সাকিব-তামিমদের বোর্ড।

বিজ্ঞাপন

ধানমন্ডির বেক্সিমকো কার্যালয়ে আজ বিসিবির কয়েকজন শীর্ষ কর্তা বসেছিলেন টেলিকনফারেন্সে কোচের সাক্ষাৎকার নিতে। এ সপ্তাহের মধ্যে ইতি টানতে চান কোচ ইস্যুর। যাকে নিয়ে দীর্ঘপরিকল্পনা করছে বিসিবি।

এ নিয়ে বিসিবির মিডিয়া কমিটির প্রধান জালাল ইউনুস এক গণমাধ্যমকে জানান, ‘দুদিনের মধ্যে আমরা হয়তো সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলব। বেশি দিন অপেক্ষা করতে চাই না। কেউ ঝুলিয়ে রাখলে আমরা তো ঝুলে থাকতে পারব না! অন্য দল কাকে নিচ্ছে, সেদিকেও তাকানোর ব্যাপার নেই। (সেপ্টেম্বরে) আফগানিস্তান সিরিজের আগে আমরা কোচ চাই। কোচ চূড়ান্ত করার আগে অনেক বিষয় আছে। কেউ যদি বলি ১০০ দিন কাজ করব, সেটায় আমরা রাজি নই। এসব বিষয় চূড়ান্ত করতে যা একটু দেরি হচ্ছে। আশা করি দুদিনের মধ্যে হয়ে যাবে।’

তবে, হেসন বা ডোমিঙ্গো ঘুরে ফিরে দুই জনের নাম সামনে চলে আসছে। তামিম-সাকিবদের পরবর্তী কোচ হিসেবে হয়তো দেখা যেতে পারে তাদের একজনকে। হেসনের অধীনে ২০১৫ ক্রিকেট বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠেছিল কিউইরা। তারা খেলেছিল ২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে। ২০১৮ সালের এপ্রিলে টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ের তিন নম্বরেও উঠেছিল দলটি।

গত বছরে পারিবারিক কারণে নিউজিল্যান্ডের কোচের পদ থেকে সড়ে আসেন হেসন। এর মাঝে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগেও (আইপিএল) কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবকে কোচিং করিয়ে গেল সপ্তাহ কোচের দায়িত্ব থেকে সড়ে দাঁড়ান হেসন। ফলে বাংলাদেশ ও ভারতের পছন্দের তালিকায় উঠে আসছে হেসনের নাম।

২০১২ সালের ডিসেম্বর থেকে ২০১৩’র ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রোটিয়া টি টোয়েন্টি দলের দায়িত্ব পালন করেন রাসেল ক্রেইগ ডোমিঙ্গো।

সারাবাংলা/জেএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন