মঙ্গলবার ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং , ৯ আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২৪ মুহাররম, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

সুবর্ণচরে এবার কিশোরী গণধর্ষণের শিকার

আগস্ট ১৮, ২০১৯ | ১২:০৪ পূর্বাহ্ণ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে এক কিশোরী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগের ভিত্তিতে আটক দুইজনকে শনিবার (১৭ আগস্ট) গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এদিন বিকেলে ভুক্তভোগী কিশোরীর বড় বোন বাদী হয়ে চর জব্বার থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। মামলায় চারজনকে আসামি করা হয়। এরা হলেন- উপজেলার চর তোরাব আলী গ্রামের মৃত মোবারক আলীর ছেলে আলী হোসেন ওরফে হোসেন ব্যাপারী, আলী আহমেদের ছেলে মো. সোহেল, মকসুদ চৌকিদারের ছেলে চৌধুরী ও চরলক্ষ্মী গ্রামের নূর করিমের ছেলে দিদার হোসেন।

চর জব্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাহেদ উদ্দিন তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, বৃহস্পতিবার (১৫ আগস্ট) সন্ধ্যায় ভুক্তভোগী কিশোরী বোনের বাড়িতে যাচ্ছিল। মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের চর আলাউদ্দিন গ্রামের বরইতলা এলাকায় পৌঁছালে আসামিরা তার পথ আটকায়। এরপর জোর করে একটি মাছের খামারে নিয়ে গিয়ে পালাক্রমে তিনজন তাকে ধর্ষণ করে।

বিজ্ঞাপন

এ সময় কিশোরী জ্ঞান হারিয়ে ফেললে আসামিরা তাকে ফেলে পালিয়ে যায়। রাত সাড়ে ১২টার দিকে পরিবারের সদস্যরা তাকে বিবস্ত্র অবস্থায় উদ্ধার করে। শুক্রবার তাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয় বলে নথিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) সৈয়দ মহিউদ্দিন আবদুল আজিম জানান, আজ (১৭ আগস্ট) মেয়েটির কয়েকটি শারীরিক পরীক্ষা করা হয়েছে। বাকি দু'টি পরীক্ষা আগামীকাল (১৮ আগস্ট) করা হবে। এরপর ধর্ষণের বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

মো. সাহেদ উদ্দিন সারাবাংলাকে জানান, অভিযোগ পাওয়ার পরে শুক্রবার আলী হোসেন ওরফে হোসেন ব্যাপারী ও মো. সোহেলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছিল। শনিবার মামলা দায়ের হলে তাদের গ্রেফতার দেখানো হয়। পলাতক আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

সারাবাংলা/আরএফ

Advertisement
বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন