মঙ্গলবার ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং , ৯ আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২৪ মুহাররম, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় অভিযোগ গঠনের শুনানি ফের পিছিয়েছে

আগস্ট ২২, ২০১৯ | ১২:০২ অপরাহ্ণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় অভিযোগ গঠনের জন্য আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর শুনানির দিন ঠিক করেছেন আদালত।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) মামলার শুনানি শেষে কেরানীগঞ্জ কারাগারের পাশে দুই নম্বর ভবনের অস্থায়ী বিশেষ জজ আদালত-৩-এর ভারপ্রাপ্ত বিচারক রবিউল আলম অভিয়োগ গঠন শুনানির জন্য নতুন এই তারিখ ঠিক করেন।

খালেদা জিয়ার অন্যতম আইনজীবী অ্যাডভোকেট হান্নান ভূঁইয়া সারাবাংলাকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মামলার অন্যতম আসামি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া অসুস্থ থাকায় হাসপাতালে চিকাৎধীন অবস্থায় রয়েছেন। এজন্য, তার পক্ষের আইনজীবীরা ‍শুনানি পেছানোর জন্য সময়ের আবেদন করেন। বিচারক শুনানি শেষে সময়ের আবেদন মঞ্জুর করেন, পাশাপাশি শুনানির নতুন দিন ঠিক করেন।

বিজ্ঞাপন

এর আগে, গত ৪ জানুয়ারি খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়েছিল। ওই দিন খালেদা জিয়া আদালতে তাকে বসানোর স্থান নিয়ে আপত্তি জানিয়েছিলেন।

এর আগে, ‘জরুরি বিধিমালা সংযুক্ত’ এই মামলার অভিযোগপত্রের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে মামলা বাতিল চেয়ে রিট করেছিলেন খালেদা জিয়া। রিটের কারণে প্রায় ৮ বছর নিম্ন আদালতে বিচারিক কার্যক্রম বন্ধ ছিল।

রিট খারিজ করে উচ্চ আদালত ২০১৬ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে দুই মাসের মধ্যে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন। উচ্চ আদালতের নির্দেশে ওই বছরের ৫ এপ্রিল আত্মসমর্পণ করে জামিন পান খালেদা জিয়া।

২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর দুদকের উপপরিচালক মো. গোলাম শাহরিয়ার ১৩ জনের বিরুদ্ধে বাদী হয়ে তেজগাঁও থানায় মামলাটি দায়ের করেন। ২০০৮ সালের ১৩ মে মামলাটি তদন্ত করে জোট সরকারের প্রভাবশালী ৯ জন সাবেক মন্ত্রী ও উপমন্ত্রীসহ মোট ২৪ জনের বিরুদ্ধে দুদকের উপপরিচালক মো. জহিরুল হুদা অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

২৪ আসামির মধ্যে সাবেক মন্ত্রী এম সাইফুর রহমান, আব্দুল মান্নান ভুইয়া, সাবেক মন্ত্রী ও জামায়াতে ইসলামীর আমির মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী, খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকো, এম কে আনোয়ার, সাবেক মন্ত্রী এম শামছুল ইসলাম, বন্দরের প্রধান অর্থ ও হিসাবরক্ষক কর্মকর্তা আহমেদ আবুল কাশেমের মৃত্যুর পর মামলায় বর্তমান আসামির সংখ্যা ১৭ জন।

অন্য আসামিদের মধ্যে রয়েছেন— বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এবং সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সাবেক চেয়ারম্যান কমোডর জুলফিকার আলী, সাবেক মন্ত্রী কর্নেল আকবর হোসেনের (প্রয়াত) স্ত্রী জাহানারা আকবর, দুই ছেলে ইসমাইল হোসেন সায়মন এবং এ কে এম মুসা কাজল, এহসান ইউসুফ, সাবেক নৌ সচিব জুলফিকার হায়দার চৌধুরী, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সাবেক সদস্য এ কে রশিদ উদ্দিন আহমেদ এবং গ্লোবাল এগ্রোট্রেড প্রাইভেট লিমিটেডের (গ্যাটকো) পরিচালক শাহজাহান এম হাসিব, সাবেক মন্ত্রী ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, সাবেক জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী এ কে এম মোশাররফ হোসেন।

সারাবাংলা/এআই/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন