বিজ্ঞাপন

‘ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন হলিউড’ ঢাকায় শুক্রবার থেকে

August 22, 2019 | 1:01 pm

এন্টারটেইনমেন্ট করেসপন্ডেন্ট

তাবৎ দুনিয়ার চলচ্চিত্রপ্রেমীরা কোয়েন্টিন তারান্তিনো ছবি দেখার অপেক্ষায় থাকে। খ্যাতিমান এই পরিচালক সম্প্রতি পর্দায় নিয়ে এসেছেন হলিউড ইতিহাসের অন্যতম বিতর্কিত ও মর্মান্তিক এক ঘটনাকে।

বিজ্ঞাপন

ষাটের দশকে সিরিয়াল কিলিংয়ের জন্য কুখ্যাত কাল্ট নেতা চার্লস ম্যানসন। ১৯৬৯ সালে চার্লস ও তার অনুসারীরা নির্বিচারে ৭ জনকে হত্যা করে সাড়া ফেলে দেয় যুক্তরাষ্ট্রে। হতভাগ্যদের একজন ছিলেন বিশ্বখ্যাত চলচ্চিত্র নির্মাতা রোমান পোলানস্কির অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী শ্যারন টেইট।


আরও পড়ুন :  ‘মানসম্মত ও গল্পনির্ভর চলচ্চিত্র নির্মাণের তাগিদ অনুভব করছি’


বিজ্ঞাপন

ম্যানসন ফ্যামিলি নামে পরিচিত তার অনুসারীরা রোমান পোলানস্কির স্ত্রী শ্যারন টেইটসহ ৫ জনকে ১৯৬৯ সালের ৯ আগস্ট ধারালো অস্ত্রের আঘাতে হত্যা করে। পরদিন একই গোষ্ঠীর সদস্যরা লস অ্যাঞ্জেলেসের ধনাঢ্য দম্পতি লেনো ও রোজমেরি লাবিয়ানকাকেও হত্যা করে। মার্কিন ইতিহাসে এ দুটি হত্যাকান্ড টেইট-লাবিয়ানকা হত্যা মামলা নামে সুপরিচিত।

এই ঘটনা অবলম্বনে তারান্তিনো নির্মাণ করেছেন ‘ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন হলিউড’ নামের চলচ্চিত্র। ঘটনাটির ৫০ বছর পূর্তিতে গত ২৬ জুলাই যুক্তরাষ্ট্রে ছবিটি মুক্তি পেয়েছে। আগামী শুক্রবার (২৩ আগস্ট) বাংলাদেশের স্টার সিনেপ্লেক্সে মুক্তি পাবে ছবিটি।

তবে হুবহু সেই সত্য ঘটনা নিয়েই ছবিটি নির্মিত হয়নি, সেটার সঙ্গে পরিচালক সংমিশ্রণ ঘটিয়েছেন কল্পনারও। রিক ডাল্টন নামের একজন নিজেকে হারিয়ে খোঁজা অভিনেতা এবং তার বন্ধু ক্লিফ বুথের সংগ্রাম নিয়ে এগিয়েছে গল্প। শ্যারন টেইট ছিলেন রিক ডাল্টনের প্রতিবেশী। না চাইতেও তাই রিক ও ক্লিফকে জড়িয়ে পড়তে হয় এই হত্যাকান্ডের ঘটনাপ্রবাহে।

কমেডি ও থ্রিলারের মিশ্রণে নির্মিত চলচ্চিত্রটির প্রধান দুই চরিত্র রিক ও লিফের ভূমিকায় দেখা যাবে লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও এবং ব্র্যাড পিটকে। শ্যারন টেইটের চরিত্র করছেন মার্গট রবি।


আরও পড়ুন :  নৃত্যে হো চি মিন’র জীবনী তুলে ধরবে তুরঙ্গমী


সারাবাংলা/পিএ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন