বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং , ৩ আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৮ মুহাররম, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

বিপিএল অভিজ্ঞরাই সাফের যুব দলে

আগস্ট ২৩, ২০১৯ | ৬:১২ অপরাহ্ণ

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: নেপালের মাটিতে আগামী সেপ্টেম্বরে আসন্ন অনূর্ধ্ব-১৮ সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য ২১ সদস্যের প্রাথমিক দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। যুবাদের দলের সিংহভাগ সদস্য দেশের ঘরোয়া ফুটবলের সবচেয়ে বড় আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) বিভিন্ন দলের হয়ে খেলেছেন।

বিজ্ঞাপন

পড়ুন: ভুটানকে গোলবন্যায় ভাসিয়ে সাফ মিশন শুরু চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশের

বিপিএলে খেলছে এমন ১৯ জন ফুটবলার সুযোগ পেয়েছেন প্রাথমিক দলে। বাকী দু'জন সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবের যুব দল থেকে সুযোগ পেয়েছেন। সাইফ শিবির থেকে সর্বোচ্চ ৮ জন জায়গা করে নিয়েছেন বাংলাদেশের সাফ দলে। ঢাকা আবাহনী থেকে ৩, ব্রাদার্স ইউনিয়ন থেকে ৩, অবনমন হওয়া নোফেল থেকে দুজন, সদ্য চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস থেকে একজন, আরামবাগ, মোহামেডান, রহমতগঞ্জ ও মুক্তিযোদ্ধা থেকে একজন করে ফুটবলার সুযোগ পেয়েছেন।

এই দলে অনুমিতভাবেই সুযোগ পেয়েছেন লিগের অন্যতম সেরা উদীয়মান ডিফেন্ডার ইয়াসিন। উদীয়মান তারকা ফুটবলার ফয়সাল আহমেদ ফাহিমও জায়গা করে নিয়েছেন দলে। এবারের লিগে সাইফের হয়ে ৭ ম্যাচে দুটি গোলও আদায় করে জায়গা করে নিয়েছেন জাতীয় দলে।

এবারের আসরে অংশ নেবে মোট সাতটি দল। বি' গ্রুপে খেলবে বাংলাদেশ। লাল-সবুজের প্রতিনিধিদের বাকি দুই প্রতিপক্ষ ভারত-শ্রীলঙ্কা। 'এ' গ্রুপে স্বাগতিক ও বর্তমান চ্যাম্পিয়ন নেপালের সঙ্গে রয়েছে ভুটান, পাকিস্তান ও মালদ্বীপ।

বিজ্ঞাপন

আগামী ২০ সেপ্টেম্বর শুরু হবে সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ চ্যাম্পিয়নশিপ। আসরের সবগুলো ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে নেপালের কাঠমান্ডুর আর্মড পুলিশ ফোর্স স্টেডিয়ামে। বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ আগামী ২১ সেপ্টেম্বর, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচে যুব ফুটবলাররা ভারতকে মোকাবেলা করবে ২৫ সেপ্টেম্বর।

আসরের দুটি সেমিফাইনাল ম্যাচই অনুষ্ঠিত হবে ২৭ সেপ্টেম্বর। আর ফাইনাল মাঠে গড়াবে একই মাসের ২৯ তারিখে। গেল (২০১৭) আসরে নেপালের কাছে হেরে রানার্সআপ হয়েছিল বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ অ-১৮ দল:
গোলরক্ষক: আরিফুল ইসলাম (ঢাকা আবাহনী), শান্ত কুমার রায় (সাইফ) এবং মহিউদ্দিন রানু (ব্রাদার্স)

ডিফেন্ডার: রাকিবুল ইসলাম (বসুন্ধরা), ইয়াসিন আরাফাত (সাইফ), তানভীর হোসেন (সাইফ), মাহমুদ ফাহিম (মুক্তিযোদ্ধা), উত্তম চন্দ্র রায় (ব্রাদার্স), মোহাম্মদ ফাহিম (নোফেল) এবং জমির উদ্দিন (নোফেল)

মিডফিল্ডার: মোহাম্মদ রিদয় (ঢাকা আবাহনী), জাভেদ আহমেদ (সাইফ), সাব্বির হোসেন (সাইফ) এবং সম্রাট আহমেদ রাজ (রহমতগঞ্জ)

ফরোয়ার্ড: দীপক রায় (ঢাকা আবাহনী), ফয়সাল আহমেদ ফাহিম (সাইফ), মারাজ হোসেন (সাইফ), আহমেদ আবিদ (সাইফ), মোহাম্মদ জুয়েল (আরামবাগ), বাপ্পি (মোহামেডান) এবং নাঈম হোসেন (ব্রাদার্স)।

আরও পড়ুন: সোহেল রানাই জিতলেন সেরা গোলের তকমা

সারাবাংলা/জেএইচ/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন