সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং , ৮ আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২৩ মুহাররম, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

এডিস মশার প্রজনন ঠেকাতে ২ সিটিকে ‘মহাপরিকল্পনা’ গ্রহণের নির্দেশ

আগস্ট ২৫, ২০১৯ | ৭:১৮ অপরাহ্ণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ডেঙ্গুর বিস্তার কমেছে বলে দাবি করেছেন স্থানীয় সরকার বিষয়ক মন্ত্রী তাজুল ইসলাম। একইসঙ্গে এডিস মশার প্রজনন ঠেকাতে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনকে মহাপরিকল্পনা বা মাস্টারপ্ল্যান গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

মন্ত্রী বলেন, হাসপাতালগুলোতে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যাও কমে আসছে। সম্মিলিত প্রচেষ্টায় ভয়াবহ এই রোগ মোকাবিলা সম্ভব হয়েছে।

রোববার (২৫ আগস্ট) সচিবালয়ে দেশের ১৮ জেলার নবনির্বাচিত ২০ জেলা পরিষদ নির্বাচিত সদস্যদের শপথ পাঠ অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

তাজুল ইসলাম বলেন, ভবিষ্যতে এ ধরনের ভয়াবহ পরিস্থিতির মুখোমুখি যেন হতে না হয়, সেজন্য একটি মাস্টারপ্ল্যান তৈরি করতে হবে। দুই সিটি করপোরশেনকে এই মাস্টারপ্ল্যান করতে বলা হয়েছে। সে পরিকল্পনায় এডিস মশার উৎপত্তিস্থল কোথায়, কেন, কীভাবে হয় এবং তা শুরুতেই ধ্বংসের ব্যবস্থা থাকতে হবে। সবাই কিভাবে নিজ নিজ বাড়ি পরিষ্কার রাখবে এবং এ জন্য কী ধরনের উদ্যোগ নিতে হবে, সেসব পরিকল্পনাও থাকবে এর মধ্যে। এই মাস্টারপ্ল্যান বাস্তবায়ন করতে দুই সিটি করপোরেশনেই জনবল বাড়ানো হবে বলেও জানান তিনি।

মন্ত্রী বলেন, রাজধানীর প্রতিটি ওয়ার্ডে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। সরকার ডেঙ্গু পরিস্থিতি মোকাবিলায় বেশি গুরুত্ব দেওয়ার কারণেই এটাকে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এবারের ডেঙ্গু পরিস্থিতি নতুন অভিজ্ঞতা এনে দিয়েছে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, আমার মন্ত্রণালয়ে ডেঙ্গু নিয়ে একটি মনিটরিং সেল কাজ করছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেও এই সেল কাজ করবে।

এদিকে, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে এ পর্যন্ত ৭৫ হাজার ২৪৩টি বাড়ি পরিদর্শন করেছে। অভিযানে এডিস মশার লার্ভা ও প্রজনন উপযোগী পরিবেশ পাওয়ায় চার জনকে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে, ১৬ জন বাড়ি মালিককে সর্তক করা হয়েছে এবং মোট ৩১ লাখ ৯০ হাজার টাকা তাৎক্ষণিক জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সারাবাংলা/জেআর/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন