বিজ্ঞাপন

স্মিথের সর্বনিম্ন, ইংলিশদের জয়ের সামনে রানের পাহাড়

September 8, 2019 | 11:38 am

স্পোর্টস ডেস্ক

চলতি অ্যাশেজে যেন আগুন ফর্মে রয়েছেন স্টিভ স্মিথ। এক বছরের নিষেধাজ্ঞা কাঁটিয়ে সাদা জার্সি গায়ে চড়িয়ে প্রথম নামেন অ্যাশেজেই। তবে তার পারফরম্যান্স দেখে বিশ্বাসের উপায় নেই যে এক বছর পর ক্রিকেটের রাজকীয় ফরম্যাটে খেলে নেমেছেন তিনি। তার পারফরম্যান্সের ওপর ভর করেই ইংলিশদের সামনে ৩৮৩ রানের পাহাড় সমান জয়ের লক্ষ্য।

বিজ্ঞাপন

ইংল্যান্ডে চলমান অ্যাশেজের প্রথম টেস্টের দুই ইনিংসে যথাক্রমে ১৪৪ এবং ১৪২। এরপর দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৯২। এই টেস্টেই ইংলিশ পেসার জোফরা আর্চারের বাউন্সারের আঘাতে মাঠ ছাড়েন তিনি। আর মাথায় আঘাত পাওয়ার কারণেই দ্বিতীয় ইনিংস ব্যাট হাতে দেখা যায়নি তাকে। আর চোট কাটিয়ে সুস্থ না হওয়ায় তৃতীয় টেস্টেও দেখা যায়নি তাকে।

বিজ্ঞাপন

তবে পুরোপুরি সুস্থ হয়ে চতুর্থ টেস্টে ফিরেই এবারের অ্যাশেজের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন তিনি। আর বনে গেছেন অ্যাশেজের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ শতককারী ব্যাটসম্যান। সামনে আছেন কেবল স্যার ডন ব্র্যাডম্যান। চতুর্থ টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে স্মিথ করেছেন ৮২ রান। আর এই অ্যাশেজে এটিই তার সর্বনিম্ন স্কোর।

স্মিথের সর্বনিম্ন স্কোর হলেও ইংলিশদের সামনে পাহাড় সমান জয়ের লক্ষ্য ছুঁড়ে দিয়েছে অজিরা। প্রথম ইনিংসে অজিদের ৪৯৭ রানের জবাবে ইংলিশদের ইনিংস গুটিয়ে যায় মাত্র ৩০১ রানে। অজিরা লিড পায় ১৯৬ রানের। আর দ্বিতীয় ইনিংসে ১৮৬ রান করে ইনিংস ঘোষণা করেন অজি অধিনায়ক টিম পেইন।

প্রথম ইনিংসের পাওয়া ১৯৬ রানের লিড আর দ্বিতীয় ইনিংসের ১৮৬ রান মিলিয়ে ৩৮২ রান অজিদের ঝুলিতে। আর অ্যাশেজে এগিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে রানের খাতা খোলার আগেই ইংলিশদের দুই ব্যাটসম্যান ফিরে গেছেন ড্রেসিং রুমে।

চতুর্থ ইনিংসের প্রথম ওভার প্যাট কামিন্সের তৃতীয় বলে ইংলিশদের দলীয় স্কোরবোর্ডে কোনো রান যোগ হওয়ার আগেই ফিরে যান জো বার্নস। প্রথম ইনিংস বার্ন্সই ছিলে ইংলিশদের সর্বচ্চ রান সংগ্রাহক। আর বার্ন্স আউট হওয়ার পরের বলেই ইংলিশ অধিনায়ক জো রুটকে ফিরিয়ে দেন কামিন্স। রানের খাতায় তখনও অঙ্কটা শূন্য, তবে প্যাভিলিয়নে ফিরে যেতে হয়েছে দুই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানকে। সেখান থেকে দলের হাল ধরার দায়িত্ব পড়েছে ডেনলি আর রয়ের কাঁধে।

পঞ্চম দিনে ৮ উইকেট হাতে নিয়ে ইংলিশদের দরকার ৩৬৫ রান। আর এত রান তাড়া করতে নেমে কখনোই জেতেনি ইংলিশরা। তবে আগে হয়নি বলে এখনও সম্ভব নয় তা সত্য নয়। এবারের অ্যাশেজের তৃতীয় টেস্টে সেটিই চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়েছেন বেন স্টোকস। ঐতিহাসিক এক ইনিংস খেলে অ্যাশেজে সমতায় ফিরিয়েছেন দলকে। আর গড়েছেন রেকর্ডও। আর তাই তো এখনও স্বপ্ন দেখতেই পারে ইংলিশরা। তবে ছেড়ে কথা বলবে না অজিরাও। শেষ দিনে তাই দেখা যাবে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই। যারা জিতবে এবারের অ্যাশেজে এগিয়ে যাবে তারাই।

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন