সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং , ৮ আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২৩ মুহাররম, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

মেসির জন্য অনুশোচনায় পোড়েন আর্সেন ওয়েঙ্গার

সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৯ | ১:৪০ অপরাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

লিওনেল মেসির ফুটবল বিশ্বের এক অনন্য উজ্জ্বল নক্ষত্র। তাকে নিজ দলে ভেড়াতে ইউরোপিয়ান ফুটবল জায়ান্টরা কম কাঠখড় পোড়ায়নি। তবে মেসি রয়ে গেছেন বার্সেলোনাতেই, নিজের শৈশবের ক্লাবেই। তবে ২০০৩ সালে মেসিকে আর্সেনালে ভেড়ানোর খুব কাছে ছিলেন আর্সেন ওয়েঙ্গার।

বিজ্ঞাপন

প্রায় ২২ বছর ধরে আর্সেনালের কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন কিংবদন্তি ফুটবল কোচ আর্সেন ওয়েঙ্গার। তার ফুটবল জীবনে নানান অর্জন যেমন রয়েছে, ঠিক তেমনই রয়েছে ব্যর্থ। তবে খুব কম ব্যর্থতায় ওয়েঙ্গার পোড়েন অনুশোচনায়। লিওনেল মেসিকে আর্সেনালে ভেড়ানোড় ইঞ্চি দূরত্বে ছিলে ওয়েঙ্গার। আর তাকে দলা ভেড়াতে না পারাটা তার ক্যারিয়ারের অন্যতম ব্যর্থ। এবং এই ব্যর্থতায় এখনও অনুশোচনায় ভুগেন তিনি।

সাবেক আর্সেনাল কোচ ২০০৩ সালে মেসির সতীর্থ সেস্ক ফ্যাব্রিগাসকে দলে ভিড়িয়েছিলেন, যেখানে ওয়েঙ্গারের কাছে সুযোগ ছিল মেসিকে দলে ভেড়ানোর। তবে তিনি ফ্যাব্রিগাসকে দলে ভিড়িয়ে অনুশোচনায় ভুগেননা। তিনি অনুশোচনায় ভুগেন মেসির সাথে চূক্তি করতে না পেরে।

সে বছরই বার্সেলোনার একাডেমি লা মাসিয়া থেকে সেস্ক ফ্যাব্রিগাস আর্সেনালে এবং জেরার্ড পিকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে পাড়ি জমান। আর মেসি রয়ে যান বার্সেলোনাতেই। এই সম্পর্কে ওয়েঙ্গার বলেন, ‘আমার ক্যারিয়ারে কিছু ব্যর্থতা রয়ে গেছে, যার মধ্যে এটি একটি। আর কিছু ব্যর্থ আপনাকে আজীবন অনুশোচনায় পোড়াবে। তার মধ্যে এটি একটি হয়ে রয়েছে আমার জীবনে।’

বিজ্ঞাপন

ওয়েঙ্গার আরও বলেন, ‘আমরা মেসির প্রতি অনেক আকৃষ্ট ছিলাম, কিন্তু সে ধরাছোঁয়ার বাইরেই ছিল। আর এই কারণেই আমরা ওকে দলে ভেড়াতে ব্যর্থ হয়েছিলাম।’

বার্সেলোনার জার্সিতে অভিষেকের পর লিওনেল মেসির ৮২৩টি ম্যাচ খেলেছেন। আর এই সময়ে এই কিংবদন্তি ৬৭১টি ম্যাচ খেলেছেন এবং ২৭২টি এসিস্ট করেছেন।

আরও পড়ুন: জয়ে ফিরেছে জার্মানী

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন