শুক্রবার ২২ নভেম্বর, ২০১৯ ইং , ৮ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২৪ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

পরিচালক জাকির খাঁনের বাঁচতে প্রয়োজন ৬টি ইনজেকশন

সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯ | ৩:২২ অপরাহ্ণ

ডিসট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

নরসিংদী: চলচ্চিত্র নির্মাতা মোহাম্মদ জাকির খাঁন। অর্থ সংকটে এখন মৃত্যুপথযাত্রী। ৩৪ বছরের কর্মজীবনে অর্জিত সমস্ত সঞ্চয়, ভিটে-মাটি বিক্রি করেও চিকিৎসা ব্যয় সম্পন্ন করতে পারছেন না তিনি। তাই সমাজের বিত্তশালী মানুষদের কাছে সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন বাংলা ছবির এই পরিচালক ও প্রযোজক।

বিজ্ঞাপন

সম্প্রতি তার শরীরে মরণঘাতি টিস্যু ক্যানসার ধরা পড়ায় ক্রমেই সংকুচিত হয়ে পড়ছে তার বাঁচার আশা। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন মরণঘাতি হলেও এই টিস্যু ক্যানসার থেকে আরোগ্য সম্ভব।


আরও পড়ুন :  বাধ্য হয়ে অতিথি পরিচালক হলেন অজয় দেবগন


জাকির খাঁন জানান, এরইমধ্যে দেশ এবং দেশের বাইরে চিকিৎসার জন্য প্রায় ১৮ লাখ টাকা ব্যয় হয়েছে। চিকিৎসক জানিয়েছেন আরো অন্তত ৬টি ইনজেকশন নিতে হবে। যার মূল্য ৭ লাখ টাকা। কিন্তু জাকির খাঁনের কাছে আর কোনো অর্থ অবশিষ্ট নেই।

বিজ্ঞাপন

জাকির খাঁনের চার কন্যা। দুই কন্যার বিয়ে হয়েছে আর দুই কন্যা লেখাপড়া করছে। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি থেকে কিছু অর্থ সহায়তা পেয়েছেন জাকির খাঁন। এখন বাকি চিকিৎসা খরচের জন্য প্রধানমন্ত্রী এবং দেশের বিত্তবানদের কাছে সহায়তা প্রত্যাশা করছেন এই পরিচালক।

মনের অজান্তে, মন চুরি, রাঙামন, চার অক্ষরের ভালবাসাসহ পূর্ণ দৈর্ঘ্য ১১টি চলচ্চিত্র পরিচালনা করেছেন তিনি। বেশ কিছু চলচ্চিত্র রয়েছে নির্মাণাধীন।


আরও পড়ুন :

.   সিদ্ধান্ত বদলে বায়োপিকে ফিরলেন আমির খান

.   অতনু ঘোষের ছবিতে জয়া, সঙ্গে প্রসেনজিৎ

.   কঙ্গনা তবে প্রশংসাও করতে জানেন!

.   মেড ইন বাংলাদেশ: যে সংগ্রামের নেই কোনো সীমানা


বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/পিএ/পিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন