বৃহস্পতিবার ১৭ অক্টোবর, ২০১৯ ইং , ২ কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৭ সফর, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

বার্সাকে কোপার ফাইনালে হারানোয় চাকরিচ্যুত ভ্যালেন্সিয়া কোচ?

সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৯ | ১২:১২ অপরাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

শিরোপা খরায় ভোগা এক ক্লাবকে প্রায় ১৯ বছর পর জিতিয়েছেন প্রধান কোনো শিরোপা। তাকে সংবর্ধনা জানানো হবে কিংবা জানানো হবে দলের ভবিষ্যৎ দায়িত্বটাও থাকছে তার ওপরেই কিন্তু না তা নয়, শিরোপা জেতার পর তাকে উপহার হিসেবে চাকরিটাই ছিনিয়ে নেওয়া হয়েছে। আর চাকরিচ্যুত কোচ মনে করছেন নির্দিষ্ট একটি ক্লাবের বিপক্ষে ফাইনাল জেতার কারণেই তার চাকরি চলে গেছে। ঘটনাটি অবাক হলেও এমনটাই ঘটেছে সদ্য ভ্যালেন্সিয়া থেকে চাকরিচ্যুত কোচ মার্সেলিনো। আর সংবাদ সম্মেলনে এই বিষয়টি নিশ্চিতও করেছেন এই কোচ।

বিজ্ঞাপন

শেষ ২০০৭-২০০৮ মৌসুমে কোনো শিরোপা জিতেছিল ভ্যালেন্সিয়া। সেবারও কোপা দেল রে জিতেছিল তারা। তবে এরপর ১৯ বছর পেরিয়ে গেলেও আর কোনো শিরোপার স্বাদ পায়নি তারা। তবে মার্সেলিনোর ছোঁয়ায় যেন পাল্টে যায় ভ্যালেন্সিয়ার। লা লিগায় গেল মৌসুমে চার নম্বরে থেকে নিশ্চিত হয় চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলা। আর সেই সাথে প্রায় ১৯ বছরের অপেক্ষার অবসান ঘটে বার্সেলোনাকে কোপা দেল রে’র ফাইনালে হারানোর মধ্য দিয়ে।

তবে কে ভেবেছিল লা লিগার মৌসুম শুরু হতে না হতেই তাকে বহিষ্কার করা হবে? আর তাকে বহিষ্কার করাও হয়েছিল বার্সেলোনার বিপক্ষে ম্যাচের ঠিক পূর্বে। ১০ সেপ্টেম্বর কোনো কারণ দর্শানো ছাড়ায় তাকে চাকরিচ্যুত করে ভ্যালেন্সিয়া।

বিজ্ঞাপন

আর চাকরিচ্যুত হওয়ার পর প্রথম কোনো সংবাদ সম্মেলনে এসে সব কিছু পরিষ্কার করেছেন মার্সেলিনো। জনপ্রিয় খেলাধুলা ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ইএসপিএনে মার্সেলিনোর একটি সাক্ষাৎকারসহ সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। সেখানে মার্সেলিনো বলেছেন, ‘আমি শতভাগ নিশ্চিত বার্সেলোনাকে হারিয়ে কোপা দেল রে জেতার কারণেই আমাকে বহিষ্কার করা হয়েছে।’

সেভিয়ায় অনুষ্ঠিত ২০১৮-২০১৯ সালের কোপা দেল রে’র ফাইনালে বার্সেলোনাকে ২-১ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে শিরোপা উল্লাসে মাতে ভ্যালেন্সিয়া। আর এই জয়ই কাল ডেকে আনে মার্সেলিনোর জন্য। তিনি বলেন, ‘গেল মৌসুমে ক্লাবের উচ্চপর্যায় থেকে আমাকে জানানো হয়েছিল কোপা দেল রে বাদ দিয়ে লিগের দিকে মন দিতে। কিন্তু সে সময়েও আমরা লিগে ভাল অবস্থানে ছিলাম আর কোপার ফাইনালে উঠে গিয়েছিলাম।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা ক্লাব কর্মকর্তাদের কথা আমলে নেইনি। আর দলের খেলোয়াড়রা, আমি এবং কোচিং স্টাফের সবাই মনে করেছি আমাদের জন্য কোপা দেল রে জয় করাটা জরুরি আর তাই আমরা সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়েই খেলেছি এই ফাইনাল এবং শেষ পর্যন্ত জিতেছিও।’

কোপা দেল রে জয়ের পর ভ্যালেন্সিয়ার প্রেসিডেন্ট থেকে শুরু করে ক্লাব কর্মকর্তাদের মধ্যে কেউই দলকে কোনো প্রকার অভিনন্দন জানায়নি। এ সম্পর্কে মার্সেলিনো বলেন, ‘আমি খুব অবাক হয়েছি এবং কষ্টও পেয়েছি যে বার্সাকে ফাইনালে হারিয়ে শিরোপা জেতার পর ক্লাবের পক্ষ থেকে আমাকে কিংবা খেলোয়াড়দের কোনো প্রকার অভিনন্দন জানানো হয়নি। তবে আমরা যখন সিঙ্গাপুরে ছিলাম সে সময় প্রসিডেন্ট আমাদের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে কোয়ালিফাই করার জন্য অভিনন্দন জানিয়েছে কিন্তু কোপা দেল রে নিয়ে কোনো কথাও বলেনি আমাদের সাথে।’

বিস্ময়কর এমন সিদ্ধান্তে ভ্যালেন্সিয়া ক্লাবের সমর্থকরা ক্ষেপেছে ক্লাব কর্মকর্তাদের ওপর। আর কোচ মার্সেলিনোর প্রতি সমবেদনা জানিয়েছে সমর্থকরা আর সেই সাথে তাদের সমর্থনও জানিয়েছে মার্সেলিনোর প্রতি।

তবে কি বার্সেলোনার বিপক্ষে জয়ের জন্যই চাকরিচ্যুত হতে হয়েছে মার্সেলিনোকে? অবশ্য এমনটাই দাবী করছেন মার্সেলিনো। এছাড়া আর কোনো কারণ খুঁজে পাচ্ছে না ইএসপিএন কিংবা মার্সেলিনো নিজেও। আর এমনটা যদি সত্যিই হয়ে থাকে তবে বেশ সমালোচনার মুখে পড়তে পারে ভ্যালেন্সিয়ার কর্মকর্তারা সাথে প্রশ্ন উঠতে পারে বার্সেলোনার দিকেও।

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন