বৃহস্পতিবার ১৭ অক্টোবর, ২০১৯ ইং , ২ কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৭ সফর, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

ব্যাংকের ঋণ-আমানত অনুপাত বেড়েছে

সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯ | ১১:১০ অপরাহ্ণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ব্যাংকের ঋণ-আমানত অনুপাত (এডিআর) বাড়িয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এতে করে ১০০ টাকা আমানতের বিপরীতে প্রচলিত ধারার ব্যাংকগুলো ৮৫ টাকা এবং ইসলামি ব্যাংকগুলো সর্বোচ্চ ৯০ টাকা ঋণ দিতে পারবে।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংকের ডিপার্টমেন্ট অব অফ-সাইট সুপারভিশন থেকে প্রকাশিত এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে এই নির্দেশনা জারি করা হয়।

এর আগে, চলতি বছরের ৩০ জানুয়ারি ঋণ প্রবৃদ্ধি বাড়তে থাকায় ব্যাংকগুলোর এডিআর কমিয়ে আনা হয়েছিল। তখন ১০০ টাকা আমানতের বিপরীতে যথাক্রমে ৮৫ ও ৯০ টাকা থেকে কমিয়ে প্রচলিত ধারার ব্যাংকগুলোর জন্য ৮৩ দশমিক ৫০ টাকা ও ইসলামী ব্যাংকগুলোর জন্য ৮৯ টাকা করা হয়। ওই সিদ্ধান্তের সাড়ে সাত মাস পর ফের সেই অনুপাত বাড়ানো হলো।

মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংকের জারি করা সার্কুলারে বলা হয়েছে, প্রচলিত ধারার ব্যাংকগুলোর দ্বি-সাপ্তাহিক গড় ভিত্তিতে রক্ষিতব্য সিআরআর ও দৈনিক ভিত্তিতে রক্ষিতব্য এসএলআর বাদে বিনিয়োগযোগ্য তহবিল দাঁড়ায় ৮১ দশমিক ৫০ শতাংশ। আর ইসলামী শরিয়াহ ভিত্তিক ব্যাংক ও প্রচলিত ধারার ব্যাংকের ইসলামী ব্যাংকিং কার্যক্রমের জন্য তা দাঁড়ায় ৮৯ শতাংশ।

বিজ্ঞাপন

সার্কুলারে অরও বলা হয়, সামগ্রিকভাবে ব্যাংকিং খাতের মূলধন ভিত্তি, তারল্য পরিস্থিতি, আন্তঃব্যাংক নির্ভরশীলতা এবং সর্বোপরি ব্যাসেল-৩ অনুসারে এলসিআর (লিক্যুইড কাভারেজ রেশিও) এবং এনএসএফআরের (নেট স্ট্যাবল ফান্ডিং রেশিও) নির্ধারিত মাত্রা সংরক্ষণের বিষয়টি বিবেচনায় রেখে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত চলিত ব্যাংকগুলোর অগ্রিম আমানত হার (এডিআর) সর্বোচ্চ ৮৫ শতাংশ (৮১.৫০ শতাংশ + অতিরিক্ত ৩.৫০ শতাংশ) এবং ইসলামী শরিয়াহ ভিত্তিক ব্যাংক ও প্রচলিত ধারার ব্যাংকের ইসলামী ব্যাংকিং কার্যক্রমের জন্য সর্বোচ্চ ৯০ শতাংশ (৮৯ শতাংশ + অতিরিক্ত ১ শতাংশ) নির্ধারণ করা হয়েছে।

সার্বিক আর্থিক সূচক বিবেচনায় বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী অতিরিক্ত এডি রেশিও বাড়ানো হয়েছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

সারাবাংলা/জিএস/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন