রবিবার ২০ অক্টোবর, ২০১৯ ইং , ৪ কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২০ সফর, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

যুবলীগ নেতা খালেদ র‌্যাবের হাতে আটক

সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৯ | ৭:২৬ অপরাহ্ণ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন (র‌্যাব)। রাজধানীর ফকিরাপুলে অবৈধ ক্যাসিনো চালানোর অপরাধে তাকে আটক করা হয়েছে। এসময় তার কাছ থেকে একটি অবৈধ অস্ত্র, গুলি ও বেশকিছু ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। লাইসেন্সের শর্ত ভঙ্গের কারণে আরও দুইটি অস্ত্র জব্দ করা হয়েছে তার কাছ থেকে।

বিজ্ঞাপন

বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় তাকে আটক করা হয়েছে বলে সারাবাংলাকে নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব সদর দফতরের মিডিয়া শাখার সহকারী পরিচালক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান।

আটকের পর একটি মাইক্রোবাসে করে খালেদকে নিয়ে যান র‌্যাব সদস্যরা

বিজ্ঞাপন

এর আগে, র‌্যাব-১-এর সিনিয়র এএসপি সুজয় সরকার সারাবাংলাকে জানান, বুধবার বিকেল ৪টা থেকেই গুলশান ২-এর ৫৯ নম্বর রোডের ৫ নম্বর বাড়িটি ঘিরে রাখে র‌্যাব। এই বাড়ির তৃতীয় তলার এ-৩ ফ্ল্যাটটি খালেদের। আটকের পর রাত ৮ টা ২৫ মিনিটে খালেদকে একটি মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যান র‌্যাব সদস্যরা।

আরও পড়ুন- খালেদের ক্যাসিনো থেকে আটক ১৪২, জব্দ ২৪ লাখ টাকা

র‌্যাব-১-এর কমান্ডিং অফিসার (সিও) লেফটেন্যান্ট কর্নেল সারোয়ার বিন কাশেমও খালেদকে আটকের তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, খালেদের ব্যবহৃহ বিভিন্ন মালামাল জব্দ করা হয়েছে। এ কারণে তাকে বাসা থেকে বের করতে সময় লেগেছে।

খালেদের গুলশানের ওই বাসার ম্যানেজার আরিফ হোসেন সারাবাংলাকে বলেন, বিকেল ৪টার দিকে র‌্যাব সদস্যরা আসেন এখানে। খালেদ মাহমুদের বাসা তল্লাশির কথা বলে তারা আমাদের নিয়ে ভেতরে যায়। এসময় খালেদের কাছ থেকে একটি অবৈধ অস্ত্র ও ছয় রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে র‌্যাব।

আরিফ হোসেন আরও বলেন, খালেদের বাসার ওয়াল শোকেস থেকে আরও দুইটি অস্ত্র পায় র‌্যাব। খালেদ এগুলোর কাগজ দেখালেও কিছু শর্ত ভঙ্গ হয়েছে বলে জানায় র‌্যাব। ওই ওই ওয়াল শোকেস থেকেই ১০০০, ৫০০ ও ৫০ টাকার নোটের ১০ লাখ ৩৪ হাজার টাকা র‌্যাব জব্দ করে। চার থেকে পাঁচ লাখ টাকা সমমূল্যের মার্কিন ডলারও জব্দ করে। একই জায়গায় দুইটি প্যাকেটে চারশ পিস ইয়াবা পাওয়া যায়।

আরও পড়ুন- যুবলীগ নেতা খালেদের বাসা ঘিরে রেখেছে র‌্যাব, ক্যাসিনোতে অভিযান

বিকেলে র‌্যাব-১ কমান্ডিং অফিসার (সিও) লেফটেন্যান্ট কর্নেল সারোয়ার বিন কাশেম সারাবাংলাকে বলেন, আমরা জানতে পেরেছি, খালেদ তার বাসাতেই আছেন। সেটা জেনেই তার বাসায় অভিযান চালাচ্ছি।

গুলশানের ওই বাড়ির দারোয়ান হেমায়েত হোসেন সারাবাংলাকে জানান, তিন তলার এ-৩ ফ্ল্যাটটি খালেদের কেনা। সেখানে দুই ছেলে ও স্ত্রীকে নিয়ে থাকেন তিনি। বুধবার বিকেল ৩টা ৩১ মিনিটে খালেদ তার বাসায় প্রবেশ করেন। এর কিছুক্ষণ পরই র‌্যাব-১-এর দল ওই বাসাটি ঘিরে ফেলে।

এদিকে, জুয়া চলছে— এমন খবরের ভিত্তিতে বিকেল ৫টার দিকে মতিঝিলের ফকিরাপুল এলাকার ইয়ং মেনস ক্লাবটিতে র‌্যাব অভিযান চালাচ্ছে। র‌্যাব জানিয়েছে, ওই ক্যাসিনো থেকে ১৪২ জনকে আটক করা হয়েছে, জব্দ করা হয়েছে জুয়া খেলার প্রায় ২০ লাখ টাকা।

সারাবাংলা/ইউজে/টিআর

বিজ্ঞাপন

Tags: ,

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন