শনিবার ১৯ অক্টোবর, ২০১৯ ইং , ৩ কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৯ সফর, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

ভারতে বিশেষায়িত কোর্স করেছে ৪,০০০ বাংলাদেশী তরুণ পেশাজীবী

সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯ | ১:০৭ পূর্বাহ্ণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ২০০৭ সাল থেকে আইটেক (ভারত সরকারের কারিগরি ও অর্থনৈতিক সহযোগিতা) কর্মসূচির অধীনে ৪,০০০ জনের বেশি বাংলাদেশী তরুণ পেশাজীবী ভারতে বিশেষায়িত স্বল্প ও মধ্যমেয়াদী কোর্স শেষ করেছে।

বিজ্ঞাপন

ঢাকার ভারতীয় হাই কমিশন ৫৫তম আইটেক দিবস (কারিগরি ও অর্থনৈতিক সহযোগিতা) উদযাপন উপলক্ষ্যে বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। ঢাকার ভারতীয় হাই কমিশনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এই তথ্য জানান হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ । প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশ-ভারতের মানুষের মেলবন্ধন দুই দেশের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। বিশেষ করে আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি'র নেতৃত্বে আমাদের সম্পর্ক একটি নতুন উচ্চতায় উন্নীত হয়েছে। দুই দেশের উন্নয়নের সাথে সাথে আমাদের মধ্যে যোগাযোগ সেতুবন্ধ আগের তুলনায় অনেক বেড়েছে। তিনি আরও বলেন, এখন সময় এসেছে দুই দেশের মধ্যে যোগাযোগ এবং সেতুবন্ধ আরও বাড়ানোর। তাহলে আমাদের পুরো অঞ্চল এক সাথে সমৃদ্ধশালী হবে পৃথিবী অবাক বিষ্ময়ে তাকিয়ে থাকবে।

ঢাকার ভারতীয় হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলি দাশ বলেন, বাংলাদেশের বিভিন্ন মন্ত্রনালয় এবং বিভাগের কর্মকর্তাদের সক্ষমতা বাড়াতে এ কর্মসূচি গুরুত্বপূর্ণ। এ রকম কর্মসূচি দু'দেশের মধ্যে বিদ্যমান চমৎকার দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতা আরও সম্প্রসারিত করবে। এই প্রশিক্ষণ কর্মসূচিগুলোর মাধ্যমে আমরা বাংলাদেশের মেধাবীদের সাথে আমাদের সেরা বিষয়গুলো ভাগ করে নেয়ার সুযোগ পাই এবং আমরাও এদেশের অভূতপূর্ব আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের অভিজ্ঞতা থেকে সমানভাবে উপকৃত হই।

ঢাকার ভারতীয় হাই কমিশন জানিয়েছে, বিগত ১৯৬৪ সালে ভারতীয় কারিগরি ও অর্থনৈতিক সহযোগিতা কৌশল কাঠামোর আওতায় ভারতের উন্নয়ন সহযোগিতা কর্মসূচির অংশ হিসেবে আইটেক কর্মসূচি চালু করা হয়। যার মাধ্যমে উন্নয়নশীল দেশগুলোকে ভারতের উন্নয়ন অভিজ্ঞতা এবং যথাযথ প্রযুক্তিগত সুবিধা প্রদান করা হয়। প্রতি বছর হিসাব, নিরীক্ষা, ব্যবস্থাপনা, এসএমই, গ্রামীণ উন্নয়ন, সংসদীয় বিষয়াবলীর মত বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রশিক্ষণ কোর্সের জন্য ১৬১ সহযোগী দেশে ১০ হাজারের বেশি প্রশিক্ষণ পর্বের আয়োজন করা হয়। আইটেক সহযোগিতায় বাংলাদেশ ভারতের প্রধান এবং গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার।

বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট অতিথিবর্গের পাশাপাশি সমাজের বিভিন্ন পর্যায়ের প্রায় ৩০০ জন প্রাক্তন আইটেক শিক্ষার্থী অংশ নেন। এ উপলক্ষ্যে আয়োজিত সংক্ষিপ্ত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে নৃত্য ছন্দ ও বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ পাবলিক কলেজের শিক্ষার্থীবৃন্দ।

সারাবাংলা/জেআইএল/একেএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন