রবিবার ২০ অক্টোবর, ২০১৯ ইং , ৪ কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২০ সফর, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

হংকংয়ের গণতন্ত্রপন্থি আন্দোলনে আবার সংঘর্ষ

সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯ | ৭:৫৫ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

হংকংয়ে চার মাস ধরে চলমান গণতন্ত্রপন্থি আন্দোলনে রোববার (২২ সেপ্টেম্বর) আবার সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। রোববার (২২ সেপ্টেম্বর) আন্দোলনকারীরা চীনের পতাকা পদদলিত করে, সাবওয়েতে ভাংচুর চালানোর পরে রাস্তায় আগুন জ্বালিয়ে দেয়। তারপরই পুলিশের সাথে আন্দোলনকারীদের সংঘর্ষ শুরু হয়। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

বিজ্ঞাপন

গার্ডিয়ান জানায়, গণতন্ত্রপন্থি আন্দোলনে রোববার (২২ সেপ্টেম্বর) দিনটি শুরু হয়েছিল শান্তিপূর্ণ ভাবেই। আন্দোলনকারীরা শা তিন ডিস্ট্রিক্টের একটি শপিং মলে জড়ো হওয়ার পর সেখানে কাগজে বানানো ওরিগামি ক্রেনের প্রদর্শনী করেন তারা। আন্দোলনকারীদের মধ্য থেকে কয়েকজন মেঝেতে চীনের একটি পতাকা ফেলে রাখেন। শত শত আন্দোলনকারীরা মিলে ওই পতাকা পদদলিত করেন। পরে পতাকাটি নদীতে ছুঁড়ে ফেলা হয়।

এরপর, ওই শপিং মলের কাছাকাছি শা তিন সাবওয়ে স্টেশনে জড়ো হতে থাকেন আন্দোলনকারীরা। সেখানে তারা সিসিটিভি ক্যামেরা ভাংচুর করেন, হাতুড়ি দিয়ে টিকেট সেন্সর মেশিন গুঁড়িয়ে দেন, ভাঙ্গা মেশিনগুলোতে স্প্রে পেইন্ট করে দেন তারা। তবে এ সময় ছাতা ব্যবহার করে তারা তাদের পরিচয় আড়াল করার চেষ্টা করেছেন।

এদিকে, সে সময়েই দাঙ্গা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছায় এবং স্টিলের ব্যারিকেড তৈরি করে সাবওয়ে স্টেশনে ঢোকা ও বের হওয়ার পয়েন্টগুলোতে বাঁধার সৃষ্টি করে।

বিজ্ঞাপন

অপরদিকে, আন্দোলনকারীরাও শপিংমলের কাছাকাছি ব্যারিকেড তৈরি করে রাস্তায় আগুন জ্বালিয়ে দেয়। পুলিশের ব্যারিকেডের দিকে আন্দোলনকারীরা অগ্রসর হতে চাইলে পুলিশ তাদের ওপর কাঁদানে গ্যাস ছোঁড়ে। তখন তারা ছাতার দেয়াল তৈরি করে নিজেদের রক্ষা করার চেষ্টা করে। কয়েকজন উগ্রপন্থি আন্দোলনকারী জানান, সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে হলে এ ধরনের কর্মসূচি দেওয়ার কোন বিকল্প নেই।

উল্লেখ করা যায় যে, শনিবার রাতে পুলিশ আন্দোলনকারীদের কাঁদানে গ্যস ও রাবার বুলেট ছোড়ার পর আন্দোলনকারীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে পেট্রোল বোমা ছোঁড়ে।

সারাবাংলা/একেএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন