রবিবার ২০ অক্টোবর, ২০১৯ ইং , ৪ কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২০ সফর, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

আবারও অন্তিম মুহূর্তে পিএসজিকে জেতালেন নেইমার

সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৯ | ৯:৪৫ পূর্বাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানে অলিম্পিক লিওর মাঠে আতিথ্য নেয় পিএসজি। শক্তির বিচারে খাতা কলমে লিগ লিডার পিএসজি এগিয়ে, তবে কঠিন পরীক্ষা নিয়েছে লিও। শেষ পর্যন্ত নেইমারের অন্তিম মুহূর্তের গোলে ১-০ গোলের জয়ে শীর্ষস্থান শক্ত করেছে পিএসজি।

বিজ্ঞাপন

ইনজুরি আক্রান্ত পিএসজি চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচে রিয়ালকে হারিয়েছিল ৩-০ ব্যবধানে। সে ম্যাচে নিষেধাজ্ঞায় পড়ে খেলা হয়নি নেইমার জুনিয়রের। আর ইনজুরির কারণে দলে ছিলেন না কিলিয়ান এমবাপে এবং এডিনসন কাভানি।

চ্যাম্পিয়নস লিগের দারুণ এক ম্যাচের পর লিগ ওয়ানের ম্যাচ খেলতে নামে পিএসজি। আর সে ম্যাচেও বাজিমাৎ। তবে জয়টা খুব সহজে আসেনি পিএসজির। নিষেধাজ্ঞায় চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচ খেলা না হলেও ফ্রেঞ্চ লিগে ঠিকই মাঠে নেমেছিলেন নেইমার। আর আক্রমণ ভাগের দায়িত্বও বর্তেছিল তার ঘাড়েই।

ম্যাচের শুরু থেকেই অবশ্য লিওর ঘাড় চেপে ধরে পিএসজি। একের পর এক আক্রমণ চালিয়েও গোলের দেখা মিলছিল না পিএসজির। নেইমারকে কেন ইচ্ছার বিরুদ্ধে পিএসজিতে রাখা হয়েছে তার প্রমাণ ম্যাচের পর ম্যাচেই দিয়ে যাচ্ছেন এই ব্রাজিলিয়ান। এই ম্যাচেও দারুণ পারফর্ম করে পিএসজির আল্ট্রাসদের জবাব দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

পুরো ম্যাচ জুড়ে দারুণ খেলা পিএসজির অপেক্ষা ছিল কেবল একটি গোলের। দারুণ আক্রমণ করেও শেষ পর্যন্ত গোলের দেখা পাচ্ছিল না প্যারিসের ক্লাবটি। খেলার শেষ পর্যায়ের দিকে সবাই হয়তো ভেবে বসেছিল ম্যাচটি তবে ড্র’য়ের দিকেই গড়াচ্ছে। তবে নেইমার ভাবছিলেন অন্য কিছু।

ম্যাচের নির্ধারিত সময়ের তখন বাকি মাত্র তিন মিনিট। ৮৭ মিনিটে ডি মারিয়ার বাড়ানো বল পেয়ে যান নেইমা, তবে নেইমারকে ঘিরে ছিল লিওর চার ডিফেন্ডার। নেইমার চারজনকে কাঁটিয়ে বল নিলেন বা পায়ে। আর বা পায়ের ঠান্ডা মাথার ফিনিশিংয়ে বল জড়ালেন জালে। ম্যাচের তিন মিনিট বাকি থাকতে লিড পেয়ে গেল পিএসজি।

আর দারুণ জমাট বাধা পিএসজি ডিফেন্স ভাঙতে অপারগ লিও। তাই তো আরও একবার অন্তিম মুহূর্তে নেইমারের গোলেই শেষ রক্ষা হলো পিএসজির। লিগ ওয়ানে ছয় ম্যাচে পাঁচ জয় এবং এক হারে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে অবস্থান করছে পিএসজি।

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন