বিজ্ঞাপন

টি-ব্যাগে মাইক্রোপ্লাস্টিক, গবেষণার আহ্বান

September 27, 2019 | 4:56 pm

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্লাস্টিকের টি-ব্যাগ ধারণার চেয়ে বেশি মাইক্রোপ্লাস্টিক চা এ ছড়াতে পারে। প্রায় ৯৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রার ফুটন্ত পানিতে ১১.৬ বিলিয়ন মাইক্রোপ্লাস্টিক ও ৩.১ বিলিয়ন ন্যানোপ্লাস্টিকের উপস্থিতির কথা জানিয়েছেন কানাডার ম্যাকগিল ইউনিভার্সিটির একদল গবেষক। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

বিজ্ঞাপন

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) মাইক্রোপ্লাস্টিক মানবদেহের জন্য তেমন ক্ষতিকারক নয় বলে জানালেও এই বিজ্ঞানীরা এ বিষয়ে আরও গবেষণা দাবি করেছেন। মূলত ১০০ ন্যানোমিটার থেকে ৫ মিলিমিটার দৈর্ঘ্যের প্লাস্টিককে মাইক্রোপ্লাস্টিক হিসেবে গণ্য করা হয়। চলতি বছর অপর একদল বিজ্ঞানীর গবেষণায় জানা যায়, বছরে একজন মানুষ গড়ে ৫০ হাজার প্লাস্টিক খেয়ে থাকেন এবং শোষণ করেন একই পরিমাণ প্লাস্টিক।

ম্যাকগিল ইউনিভার্সিটির বিজ্ঞানীরা তাদের গবেষণার জন্য মন্ট্রিলের বিভিন্ন ক্যাফে থেকে চার ধরনের প্লাস্টিকের টি-ব্যাগের নমুনা সংগ্রহ করেন। তারপর ৫ মিনিট পানি ফুটিয়ে টি-ব্যাগ রাখার পর তা মাইক্রোস্কোপস ও স্পেকট্রোসোকপিতে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেন। অধিকাংশ টি-ব্যাগ প্রাকৃতিক ফাইবারে তৈরি হলেও তা এঁটে দিতে প্লাস্টিকের ব্যবহার প্রয়োজন হয়। সে থেকেও মাইক্রোপ্লাস্টিকের অস্তিত্ব মিলেছে।

বিজ্ঞাপন

সম্প্রতি নানা গবেষণায় বাতাস, মাটি, নদী কিংবা সমুদ্রের গভীরে সর্বত্রই মাইক্রোপ্লাস্টিকের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। মাইক্রোপ্লাস্টিকের খোঁজ মিলেছে বোতলের পানি, সামুদ্রিক মাছের খাবার এমনকি বিয়ারেও। গত বছরের অক্টোবরে প্রথমবারের মতো মানুষের মলেও মাইক্রোপ্লাস্টিকের উপস্থিতি মিলে।

সারাবাংলা/ এনএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন