বৃহস্পতিবার ১৭ অক্টোবর, ২০১৯ ইং , ২ কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৭ সফর, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

বুয়েটের আবাসিক হলে শিক্ষার্থীর মৃতদেহ, শরীরে আঘাতের চিহ্ন

অক্টোবর ৭, ২০১৯ | ৮:৫০ পূর্বাহ্ণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শেরেবাংলা হল থেকে আবরার ফাহাদ (২১) নামের একজন শিক্ষার্থীর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশের ধারণা, তাকে কেউ পিটিয়ে হত্যা করেছে।

বিজ্ঞাপন

সোমবার (৭ অক্টোবর) ভোর চারটার দিকে বুয়েটের শেরেবাংলা হলের উত্তর ব্লকের ২য় তলার সিঁড়ি থেকে ওই শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

মৃত ফাহাদ বুয়েটের ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিকস বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি শেরেবাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষে থাকতেন। তার গ্রামের বাড়ি কুষ্টিয়া সদর উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা রোডে। বাবার নাম বরকত উল্লাহ।

শেরেবাংলা হলের প্রভোস্ট মো. জাফর ইকবাল খান বলেন, ‘রাত আনুমানিক তিনটার দিকে খবর পাই এক শিক্ষার্থী হলের সিঁড়িতে পড়ে আছে। পরে সেখানে গিয়ে দেখি ফাহাদের নিথর দেহ। এ সময় তাৎক্ষণিকভাবে বুয়েটের চিকিৎসক দিয়ে তাকে পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষা শেষে চিকিৎসক জানান, ফাহাদ বেঁচে নেই। পরে পুলিশকে খবর দেওয়া হলে তারা এসে ফাহাদের মৃতদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে যায়।’

বিজ্ঞাপন

চকবাজার থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) দেলোয়ার হোসেন জানায়, ভোরে সংবাদ পেয়ে বুয়েটের শেরেবাংলা হলের উত্তর ব্লকের ২য় তলার সিঁড়ি থেকে ফাহাদের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, রাতের কোনো এক সময় তাকে পিটিয়ে হত্যা করে ফেলে রেখেছে কেউ। মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এসআই দেলোয়ার জানান, ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পাওয়ার পর তার মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে ধারণা পাওয়া যাবে।

সারাবাংলা/এসএসআর/পিটিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন