মঙ্গলবার ১২ নভেম্বর, ২০১৯ ইং , ২৮ কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৪ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

মিরপুরে বাসা থেকে স্বামী-স্ত্রী ও ছেলের মৃতদেহ উদ্ধার

অক্টোবর ১০, ২০১৯ | ৪:৪৭ অপরাহ্ণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: রাজধানীর মিরপুর ১৩ নম্বর সেকশনের একটি বাসা থেকে স্বামী-স্ত্রী ও সন্তানের মরদেহ উদ্ধার করেছে কাফরুল থানা পুলিশ।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (১০ অক্টোবর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ১৩ নম্বর সেকশনের ৫ নম্বর রোডের একটি বাসা থেকে ওই তিনজনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। বহুতল ওই বাসার দ্বিতীয় তলায় তারা ভাড়া থাকতেন।

মৃতরা হলেন, মো. বায়েজীদ (৪৭) তার স্ত্রী অঞ্জনা (৪০) তাদের একমাত্র ছেলে ফারহান (১৭)। ওই দম্পতির সন্তান মিরপুর কমার্স কলেজের একাদশ প্রথম বর্ষে পড়াশোনা করতেন।

কাফরুল থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) জাহাঙ্গীর আলম জানায়, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে বায়েজীদ তার স্ত্রী ও সন্তানকে বিষ খাইয়ে হত্যা করেন। পরে গলায় ফাঁস দিয়ে নিজে আত্মহত্যা করেন। তাদের রুম থেকে একটি চিরকুট পাওয়া গেছে।

তবে ওই চিরকুটে কী লেখা আছে সে বিষয়ে কোনো তথ্য দেননি এসআই জাহাঙ্গীর আলম।

প্রতিবেশীরা জানান, মো. বায়োজিদ ব্যবসায়িক ও আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত ছিলেন। তিনি বিভিন্ন ব্যাংক থেকে ঋণও নিয়েছিলেন। ঋণের টাকা পরিশোধ করতে না পেরে তারা আত্মহত্যা করতে পারেন বলে প্রতিবেশীদের ধারণা।

এ বিষয়ে এসআই জাহাঙ্গীর আলম জানান, ঋণের কারণে নাকি অন্য কোনো কারণে এ ঘটনা ঘটেছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে বলে জানান এসআই জাহাঙ্গীর আলম।

কাফরুল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সেলিমুজ্জামান সারাবাংলাকে বলেন, ওই বাসায় গিয়ে আমরা দেখতে পাই ছেলে এবং স্ত্রী বিছানায় পড়ে আছে। আর বায়োজিদ ফ্যানের সঙ্গে ঝুলছে। তবে এটি হত্যা না আত্মহত্যা সেটি ক্রাইম সিন টিম আলামত সংগ্রহ করার পর বলা যাবে। ঘটনার তদন্তে ক্রাইম সিন টিম কাজ করছে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসএইচ/এসএসআর/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন