বৃহস্পতিবার ১৭ অক্টোবর, ২০১৯ ইং , ২ কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৭ সফর, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

ডিজিটাল ডিভাইস বিদেশেও রফতানি করছি: মোস্তাফা জব্বার

অক্টোবর ১০, ২০১৯ | ৭:৩৫ অপরাহ্ণ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: দেশে শুধু ডিজিটাল ডিভাইস উৎপাদনই হচ্ছে না, বিদেশেও রফতানি করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। বৃহস্পতিবার (১০ অক্টোবর) রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডে কম্পিউটার সিটি সেন্টারে আয়োজিত পাঁচ দিনব্যাপী ডিজিটাল আইসিটি ফেয়ার-২০১৯ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা জানান।

বিজ্ঞাপন

মন্ত্রী বলেন, ‘ইলেকট্রনিক পণ্যের শতকরা ৯০ ভাগ দেশে উৎপাদন করছে। পৃথিবীর সাতটি কমপ্রেসর উৎপাদনকারি দেশের মধ্যে বাংলাদেশ একটি। আমরা এখন আমেরিকা, নাইজেরিয়া, ফিজি এবং নেপালে ল্যাপটপ, ইরাকে কমপ্রেসার এবং সৌদিতে আইওটি ডিভাইস রফতানি করছি। স্যামসাংসহ ৮টি কোম্পানি বাংলাদেশে মোবাইল সংযোজন করছে। বাংলাদেশ তার নিজের উৎপাদিত পণ্য দিয়েই অদূর ভবিষ্যতে দেশের ইলেকট্রনিক ও ডিজিটাল ডিভাইস মার্কেটের দোকান সাজাতে পারবে, দেশের শতভাগ চাহিদা মেটাতে সক্ষম হবে।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদৃষ্টি সম্পন্ন কর্মসূচি গ্রহণের ফলে আমদানি নির্ভর বাংলাদেশ আজ ডিজিটাল পণ্যের রফতানিকারক দেশে উন্নীত হয়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘ডিজিটাল পণ্যের ওপর নগদ সহায়তা ও কর অবকাশসহ তার যুগান্তকারী বিভিন্ন উৎপাদনবান্ধব কর্মসূচিতে বাংলাদেশ এখন রফতানি নির্ভরতা অর্জন করেছে।’

নিরাপদ ইন্টারনেট নিশ্চিত করতে নেওয়া বিভিন্ন কর্মসূচি তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, ‘গত ডিসেম্বরের পর এ পর্যন্ত ২২ হাজার পর্নোসাইট এবং ২ হাজার জুয়ার সাইট বন্ধ করা হয়েছে। আমরা ইন্টারনেট চর্চা করব, পৃথিবীর সর্বশেষ প্রযুক্তি ব্যবহার করব কিন্তু কোন অবস্থাতেই দেশ, জাতি, সমাজ, ধর্মীয় ও সাংস্কৃতিক মূল্যবোধ, পরিবার ও ব্যক্তিগত নিরাপত্তা বিসর্জন দিয়ে করব না।’ এসময় মন্ত্রী ঢাকায় ফেসবুক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে তার সফল বৈঠকের অগ্রগতি তুলে ধরেন।

বিজ্ঞাপন

এর আগে, ফিতা কেটে মন্ত্রী মেলার উদ্বোধন করেন এবং বিভিন্ন স্টল ঘুরে দেখেন।

ডিজিটাল আইসিটি ফেয়ার-২০১৯ এর আহ্বায়ক তৌফিক এহসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন- কম্পিউটার সিটি সেন্টারের সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার সুব্রত সরকার, বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিন, বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সেক্রেটারি জহিরুল হক ভূঁইঞা এবং এফবিসিসিআই পরিচালক আবু মোতালেব।

সারাবাংলা/ইএইচটি/এমও

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন