বিজ্ঞাপন

স্টিমাচের চোখে ‘দুর্দান্ত বাংলাদেশ’, জেমির চোখে ‘হতাশা’

October 16, 2019 | 6:49 pm

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: শেষ মুহূর্তের গোলে জয় বঞ্চিত হয়েছে বাংলাদেশ। বিশ্বকাপ বাছাইয়ের তৃতীয় ম্যাচে এক পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছেড়েছে ভারত-বাংলাদেশ। যুব ভারতীয় স্টেডিয়ামে লাখ দর্শকের সামনে অন্য এক বাংলাদেশকে দেখেছে ফুটবল সমর্থকরা। আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে ভরপুর এ ম্যাচে প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তি মিলিয়ে মিশ্র অনুভূতি সৃষ্টি হয়েছে দেশের ফুটবল ভক্তদের।

বিজ্ঞাপন

তবে সাদের গোলে লিড নিয়ে ম্যাচ শেষ মুহূর্তের গোলে লিড ছাড়াটা দুঃখজনক মনে হতে পারে অনেকের। অন্তত লাল-সবুজদের কোচ জেমি ডে এমনটাই ভাবছেন, ‘আসলে আমরা তিন পয়েন্ট পেতে পারতাম। দুর্ভাগ্যজনকভাবে এক পয়েন্ট পেয়েছি। শেষ মুহূর্তে গোল হজম করায় আমি হতাশ।’

ভারতের মাটিতে চোখে চোখ রেখে লড়াই করে খেলার যে মানসিকতা সেটাকে স্বাগত জানাতেও ভুললেন না তিনি, ‘ছেলেদের নিয়ে গর্বিত। তারা ভারতের মাটিতে অনেক দর্শকদের সামনে যে ফুটবল খেলেছে তা এককথায় অসাধারণ।’

বিজ্ঞাপন

তবে কাগজ কলমের হিসেব পাল্টে দিয়ে মাঠে জামাল ভূইয়াদের পারফরম্যান্স নজর কাড়লেও গোল মিসের মহড়ায় জয়টা হাতছাড়া হওয়াতে হতাশ জেমি, ‘ভারতের সবাই ভেবেছিল যে তারা ম্যাচটা জিতবে। দ্বিতীয়ার্ধে আমরা কয়েকটি সুযোগ পেয়েছি। সেগুলো কাজে লাগাতে পারলে জয়নটা নিশ্চিত হয়ে যেত। সুযোগ মিসের কারণে আমি খুবই হতাশ।’

দেশের ফুটবলের বদলে যাওয়া গল্প লেখেছেন জেমি। তার হাতে দেড় বছর ধরে দলটা এখন চাঙা। আত্মবিশ্বাস ফিরে আনা থেকে শুরু করে পারফরম্যান্স করে আনার বিষয়টা যেভাবে সামলাচ্ছেন জেমি সেটারও ব্যাখ্যা দিলেন,‘সবাই জানে ভারত কতটা শক্তিশালী। ম্যাচে ফেবারিট ছিল ভারতই। কিন্তু আমি ছেলেদের বলে দিয়েছে, তোমরা উপভোগ করো। চাপ নিয়ো না। ছেলেরা সেটাই করেছে। আসলে আমি জিততে পারলে খুশি হতাম। র‌্যাঙ্কিংয়ে ৮৫ ধাপ ওপরে থাকা দলের বিপক্ষে এই ড্র আমাদের জন্য জয়ের সমান।’

এদিকে ভারতের কোচ ক্রোয়েশিয়ার ইগোর স্টিমাচ বাংলাদেশের খেলায় মুগ্ধ, ‘বাংলাদেশকে অভিনন্দন। তারা দুর্দান্ত ফুটবল খেলেছে। খুবই রোমাঞ্চকর একটা ম্যাচ ছিল। এটাই ফুটবলের সৌন্দর্য্য। জয়টা আমাদের প্রাপ্য ছিল। আমরা পুরো ম্যাচ দাপটে খেলেছি। আমি পরিষ্কারকরে বলতে পারি এই গোলহজমটা আমরা মেনে নিতে পারছি না।’

সারাবাংলা/জেএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন