বুধবার ১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ইং , ২৯ কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৫ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

পিএসজিকে বড় জয় এনে দিলেন এমবাপে-ডি মারিয়া

অক্টোবর ১৯, ২০১৯ | ৯:৩৩ পূর্বাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানে একছত্র আধিপত্য রেখে চলেছে পিএসজি। প্যারিসের ক্লাবটির আক্রমণ ভাগের নিয়মিত তিন সেরা তারকাকে ছাড়ায় মাঠে নামতে হয়েছিল রাতে। ইনজুরির কারণে নেইমার, কিলিয়ান এমবাপে এবং এডিনসন কাভানি তিনজনের কেউই ছিলেন না লিগ ওয়ান চ্যাম্পিয়নদের স্কোয়াডে। আক্রমণভাগের তারকাদের অভাব ঘুচাতেই যেন ত্রাতা হয়ে উঠলেন অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। জোড়া গোল করে নিসকে ৪-১ ব্যবধানে হারিয়ে লিগের শীর্ষস্থানটা আরও পাকাপোক্ত করলেন ডি মারিয়া।

বিজ্ঞাপন

ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। ম্যাচে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগও আসে খেলা যখন গড়িয়েছে কেবল তিন মিনিট। প্রেসনেল কিমপেম্বের বাম পায়ের জোড়ালো শট দিরিয়ে দেন নিস গোলরক্ষক বেনিতেজ। তবে পিএসজিকে খুব বেশি সময় আটকে রাখতে পারেনি নিস। একের পর এক আক্রমণ সাঁজাতে থাকে ডি মারিয়ারা। আর তাই তো লিড পেতেও খুব বেশি সময় অপেক্ষা করতে হয়নি। ১৫ মিনিটে পিএসজিকে এগিয়ে নেন ডি মারিয়া। ইন্টার মিলান থেকে ধারে পিএসজিতে যোগ দেওয়া মাউরো ইকার্দির বাড়ানো বলে গোলকিপারকে একা পেয়ে বাম পায়ের দারুণ শটে গোল করেন ডি মারিয়া।

প্রথমে লিড নেওয়ার পর পিএসজির আক্রমণের গতি বেড়ে যায় দ্বিগুণ। আর নিজেদের লিড দ্বিগুণ করতেও আর বেশি সময় নেয়নি টমাস তুখলের দল। ম্যাচের ২১ মিনিটে নিজের এবং দলের দ্বিতীয় গোল করেন ডি মারিয়া। প্রথমার্ধেই পিএসজি এগিয়ে ২-০ গোলের ব্যবধানে।

রিয়াল মাদ্রিদ থেকে পিএসজিতে নাম লেখানো নাভাসকে প্রথমার্ধে তেমন পরীক্ষায় ফেলতে পারেনি নিস। তবে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে ম্যাচের প্রথম সুযোগ পায় নিস। কিন্তু সেখানে কোস্টারিকান বাজপাখি খ্যাত কেইলর নাভাস ছিলেন। নিসের মিড ফিল্ডার পিয়েরে মেলুউয়ের হেড বাঁচিয়ে দেন নাভাস। ৬৭ মিনিটে নিসের হয়ে গোল করে ম্যাচে ফেরার ইঙ্গিত দেন ইগনাতিয়াস গ্যানাগো। তবে এরপর ৭৪ মিনিটে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন নিসের ওয়াইল্যান সাপ্রিয়েন। এই ঘটনার পর রেফারির সাথে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়ের কারণে লাল কার্ড দেখেন ক্রিসটোফ হেরেলও।

মাত্র তিন মিনিটের ব্যবধানে নয়জনের দলে পরিণত হয় নিস। নয়জনের নিসকে শেষ দিকে আরও দুই গোল দিয়ে বড় জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে পিএসজি। এর আগে ৮৩ মিনিটে পাবলো সারাবিয়ার বদলি হিসেবে মাঠে নামেন এমবাপ্পে। ইনজুরি থেকে মাঠে ফেরার চার মিনিট পরেই গোল পান তিনি। আর অতিরিক্ত সময়ে এমবাপ্পের পাসেই পিএসজির চতুর্থ গোল করেন ইকার্দি। ৪-১ গোলের এই জয়ে লিগ ওয়ানে ১০ ম্যাচে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষেই আছে পিএসজি। এক ম্যাচ কম খেলে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে নঁতে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন