বৃহস্পতিবার ২১ নভেম্বর, ২০১৯ ইং , ৭ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২৩ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

মহাকাশ স্টেশনের বাইরে এই প্রথম ২ নারীর পদচারণা

অক্টোবর ১৯, ২০১৯ | ৩:২০ অপরাহ্ণ

রোকেয়া সরণি ডেস্ক।।

আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনের (আইএসএস) বাইরে মহাকাশে পদচারণা করলেন দুই নারী ক্রিস্টিনা কখ ও জেসিকা মেয়ার। এর মাধ্যমে তারা হয়ে গেলেন ইতিহাসের অংশ। কারণ, এর আগে পুরুষের উপস্থিতি ছাড়া কোনো নারী মহাকাশ স্টেশনের বাইরে হাঁটার সুযোগ পাননি। এবারে সেটাই করে দেখালেন যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার দুই নারী মহাকাশচারী।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার (১৮ অক্টোবর) সকাল ৭টা ৫০ মিনিটে অকেজো হয়ে যাওয়া একটি পাওয়ার কন্ট্রোল ইউনিট বদলানোর কাজে মহাকাশ স্টেশনের বাইরে যান নভোচারী ক্রিস্টিনা কখ ও জেসিকা মেয়ার। প্রায় সাড়ে ছয় ঘণ্টা এই কাজের জন্য বাইরে থাকতে হয়েছে তাদের।

পুরুষ মহাকাশচারী ছাড়া নারীদের আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনের বাইরে আগে কখনো এভাবে কাজ করতে দেখা যায়নি। তাই নাসা একে ‘ঐতিহাসিক পদচারণা’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছে।

নাসা জানিয়েছে, মহাকাশচারী ক্রিস্টিনা কখ আগে মহাকাশে হাঁটলেও জেসিকা মেয়ারের ক্ষেত্রে এমন অভিজ্ঞতা এবারই প্রথম। এর মাধ্যমে তিনি মহাকাশে হাঁটার সুযোগ পাওয়া পঞ্চদশ নারী হিসেবে নাম লেখালেন।

বিজ্ঞাপন

ক্রিস্টিনা কখ তার অনুভূতি জানিয়ে বলেন, নারী হিসেবে মহাকাশে অবদান রাখতে পেরে ভালো লাগছে। নানা কাজে নারীদের ভূমিকা রাখার সুযোগ আছে। প্রত্যেক নারী নিজের অবস্থান থেকে তা করতে পারে বলে তিনি মনে করেন।

জেসিকা মেয়ার বলেন, একটি দলে অনেকের সঙ্গে কাজ করেছি বলেই সবার সহযোগিতায় এতদূর আসা সম্ভব হয়েছে। এ অনুভূতি খুবই আনন্দের।

ক্রিশ্চিনা কখ পেশায় ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার। মিশিগানে তার জন্ম। নর্থ ক্যারোলিনা স্টেট ইউনিভার্সিটি থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন তিনি। ২০১৩ সালে মহাকাশচারী হিসেবে নাসায় যোগ দেন ক্রিস্টিনা। অন্যদিকে, জেসিকা মেয়ার একজন শরীরতত্ত্ববিদ। তিনিও ২০১৩ সালে নাসার মহাকাশচারী হিসেবে মনোনীত হন।

১৯৮৪ সালে রুশ নভোচারী সভেতলানা সাভিৎস্কায়া প্রথম মহাকাশে বিচরণ করেছিলেন। এরপর  থেকে এই পর্যন্ত ৪২ বার নারীরা মহাকাশে হেঁটেছেন। ইসভেতলানা তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়নের স্যালুট-৭ মহাশূন্য কেন্দ্রের বাইরে হেঁটেছিলেন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/টিসি/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন