সোমবার ১৮ নভেম্বর, ২০১৯ ইং , ৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২০ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

বিসিবিতে নতুন অতিথি

অক্টোবর ১৯, ২০১৯ | ২:৩৮ অপরাহ্ণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

শিরোনাম দেখে যে কেউই অনুসদ্ধিৎসু হয়ে উঠতে পারেন। অনুসন্ধানী মন আপনার মনে প্রশ্নের উদ্রেক করতে পারে, হঠাৎ করে বাংলাদেশ ক্রিকেটের আঙিনায় অতিথি হয়ে এলেন কে? না, কোনো ব্যক্তি নয়। এসেছে কয়েকটি রোলার। গ্রাউন্ডস কমিটির চাহিদা মোতাবেক কয়েকটি রোলারসহ মাঠ সংস্কারে আরও বেশ কিছু সরঞ্জামাদি ভারত থেকে আমদানি করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেটের সর্বোচ্চ প্রশাসন।

বিজ্ঞাপন

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের আইরন গেইটের সামনে সারিবদ্ধভাবে তাদের রেখে দেওয়া হয়েছে। দুটি রোলার থেকে এখনও মোড়ক খোলা হয়নি। চটে প্যাচানো মোড়কের ওপর ‘Made in India’ লেখা শোভা পাচ্ছে। তবে অপরটি দেখে মনে হলো মোড়ক খুলে রোলিংয়ের জন্য প্রস্তুত করে রাখা হয়েছে।

মজার ব্যাপার হলো, নতুন সরঞ্জাম হিসেবে রোলারগুলো যতটা দ্যুতি ছড়ানোর কথা ছিল ততটা ছড়াচ্ছে না। দেখে মনে হচ্ছে উৎপাদনের পর বহুদিন কারখানায় পড়েছিল।

বিজ্ঞাপন

এদিকে সংরঞ্জামাদির সংখ্যাটি ঠিক কত তা জানা যায়নি। বিসিবি’র গ্রাউন্ডস কমিটির সিনিয়র ম্যানেজার সৈয়দ আব্দুল বাতেনের কাছে এ প্রসঙ্গে জানতে চাওয়া হলে তিনি তা জানাতে অপারগতা প্রকাশ করে বল ঠেলে দিলেন বিসিবির টেন্ডার ও পারচেজ কমিটির কোর্টে।

‘এগুলো নিয়ে কথা বলা নিষেধ। এগুলো আমাদের টেন্ডার ও পারচেজ ডিপার্টমেন্ট বলতে পারবে।'

প্রত্তুত্তরে এই প্রতিবেদক বললেন, আপনার কাছে সরঞ্জামের দাম জানতে চাওয়া হয়নি। ঠিক কতগুলো আনা হয়েছে সেটা। কিছুটা অশান্ত হয়ে উঠলেন বাতেন। এরপর জানা কথাগুলোই অবলীলায় বলে গেলেন, ‘এগুলো সবই মাঠের কাজের জন্য। মাঠে রোল দিতে হয় না? অনেক আইটেম কেনা হয়েছে। রোলার, ঘাস কাটার মেশিন আরও অনেক কিছু। ভালো থাকবেন ভাই। ধন্যবাদ।' বলেই ওপাশ থেকে ফোন কেটে দিলেন।

এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিসিবির এক সূত্র জানাল, ‘আমাদের গ্রাউন্ডসের উন্নয়ন ও সংস্কারে বেশ কিছু দিন ধরেই এসব সরঞ্জামাদির প্রয়োজন ছিল। এগুলো আসাতে উইকেট বানানো ও মাঠ প্রস্তুত করা আমাদের জন্য এখন সহজ হবে।'

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এমআরএফ /এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন