সোমবার ২৭ জানুয়ারি, ২০২০ ইং

৩১ রান করেই রেকর্ড বুকে উমেস যাদব

অক্টোবর ২০, ২০১৯ | ৮:১৯ অপরাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

রাঁচি টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৯ উইকেটে ৪৯৭ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করে টিম ইন্ডিয়া। ব্যাটিংয়ে নেমে ৫ ওভার খেলার সুযোগ পায় সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকা। তাতে ৯ রান তুলতেই হারিয়েছে দুই ওপেনারকে। দ্বিতীয় দিন শেষে ৪৮৮ রানে পিছিয়ে প্রোটিয়ারা। এরই মধ্যে ব্যাট হাতে ৩১ রান করা ভারতীয় পেসার উমেস যাদব বিশ্ব রেকর্ডে নাম লিখিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

যাদবের ১০ বলে সাজানো ইনিংসে কোনো বাউন্ডারি নেই। তবে, ছোটো এই ক্যামিও ইনিংসে হাঁকিয়েছেন ৫টি ওভার বাউন্ডারি। ৫ ছক্কায় ৩০ রানের পাশাপাশি একটি সিঙ্গেল নেন তিনি। তার ৩১ রানের ইনিংস টেস্টের এক ইনিংসে সর্বোচ্চ স্ট্রাইকরেটের রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে।

২০০৪ সালে অকল্যান্ডে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক স্টিফেন ফ্লেমিং ১১ বলে ৬টি চার আর একটি ছক্কায় করেন অপরাজিত ৩১ রান, তার স্ট্রাইকরেট ছিল ২৮১.৮১। গত ১৫ বছরে ফ্লেমিংয়ের এই স্ট্রাইকরেট ছিল সর্বোচ্চ। আজ তা ভেঙে দিয়েছেন উমেস যাদব। ১৫ বছরের রেকর্ড ভাঙা যাদবের স্ট্রাইকরেট ৩১০.০০। এই তালিকায় তিন নম্বরে ২৭৭.৭৭ স্ট্রাইকরেটে ২০১৫ সালে ভারতের বিপক্ষে ৯ বলে ২৫ রান করা অস্ট্রেলিয়ান তারকা রায়ান হ্যারিস।

বিজ্ঞাপন

প্রথম ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমে ভারতের ওপেনার মায়াঙ্ক আগারওয়াল (১০), চেতশ্বর পূজারা (০) আর দলপতি বিরাট কোহলি (১২) দ্রুত বিদায় নেন। এরপর মহাকাব্যিক এক ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকান রোহিত শর্মা। ২৫৫ বলে ২৮টি চার আর ৬টি ছক্কায় করেন ২১২ রান। আজিঙ্কা রাহানে ১৯২ বলে ১৭টি চার আর একটি ছক্কায় করেন ১১৫ রান। রবীন্দ্র জাদেজা ৫১, রিদ্ধিমান সাহা ২৪, রবীচন্দ্রন অশ্বিন ১৪, উমেস যাদব ৩১, অভিষিক্ত শাহবাজ নাদিম ১* আর মোহাম্মদ শামি ১০* রান করেন।

প্রোটিয়াদের হয়ে প্রথম টেস্ট খেলতে নামা স্পিনার জর্জ লিন্দে চারটি, কেগিসো রাবাদা তিনটি করে উইকেট পান। নিজেদের প্রথম ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমে ০ রানেই বিদায় নেন ওপেনার ডীন এলগার। আর ব্যক্তিগত ৪ রানে বিদায় নেন আরেক ওপেনার কুইন্টন ডি কক। দিন শেষে জুবায়ের হামজা ০ আর দলপতি ডু প্লেসিস ১ রানে অপরাজিত। একটি করে উইকেট পেয়েছেন মোহাম্মদ শামি এবং উমেস যাদব।

রোহিত শর্মার টেস্ট ক্যারিয়ারে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি, আজিঙ্কা রাহানের সেঞ্চুরিতে রানের পাহাড় গড়ে স্বাগতিক ভারত। আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের এই ম্যাচের দ্বিতীয় দিন শেষেও ধুঁকছে সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকা। তিন ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথম দুটি এরই মধ্যে হেরেছে প্রোটিয়ারা। সিরিজের শেষ ম্যাচেও ডু প্লেসিসদের অবস্থা শোচনীয়।

সারাবাংলা/এমআরপি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন