মঙ্গলবার ১৯ নভেম্বর, ২০১৯ ইং , ৫ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২১ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

মেঘের শামিয়ানা আড়াল করে বিকেলে হাসতে পারে সূর্য

অক্টোবর ২৬, ২০১৯ | ১২:১৮ অপরাহ্ণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: গত দুদিন ধরে ঢাকায় মুখ তুলে তাকায়নি সূর্য। আলসে বৃষ্টিতে রাস্তাঘাট কর্দমাক্ত হয়ে আছে। মেঘের শামিয়ানায় ঢাকা আছে সমস্ত আকাশ। তবে আবহাওয়া অফিস জানাচ্ছে, শনিবার (২৬ অক্টোবর) বিকেল থেকে সূর্যের হাসি দেখতে পাবে নগরবাসী। তার আগে দুপুরেই এক পশলা বৃষ্টি দিতে পারে অকস্মাৎ হানা।

বিজ্ঞাপন

আবহাওয়া অফিসের মেঘ মানচিত্রে দুপুর ২টা থেকে ৩টা পর্যন্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে। এরপর থেকে আগামীকাল রোববার ভোর পর্যন্ত আকাশ থাকবে পরিষ্কার। ভোর ৬টায় আবারও বৃষ্টি হতে পারে। বৃষ্টি থামলে বাড়তে থাকবে রোদের উত্তাপ। কমপক্ষে দেড় সপ্তাহ ঢাকার আকাশ থাকবে সূর্যের দখলে। এরপর আবার নভেম্বরে প্রথমার্ধে রয়েছে বৃষ্টির সম্ভাবনা।

আবহাওয়াবিদ আবদুর রহমান বলেন, বৃষ্টি কালকেই থেমে যাবে। এরপর থেকে আবার পরিবেশের রোদের প্রাধান্য বাড়বে। নভেম্বরে প্রথমার্ধে বৃষ্টি হতে পারে। ওই বৃষ্টির পর ধীরে ধীরে প্রকৃতিতে শীতের প্রভাব বাড়তে থাকবে।

এদিকে শুক্রবার (২৫ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৬টা পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, ঢাকা, ময়মনসিংহ, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং রংপুর বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বৃষ্টি হতে পারে।

বিজ্ঞাপন

দেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে শনিবার দিনের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পেতে পারে এবং অন্য জায়গায় তা সামান্য বাড়তে পারে।

আবহাওয়া অফিস জানায়, উপকূলীয় অন্ধ্রপ্রদেশ-উড়িষ্যা ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত সুস্পষ্ট লঘুচাপটি বর্তমানে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় লঘুচাপ রূপে অবস্থান করছে। এর বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এ জন্য এই বৃষ্টি হচ্ছে।

আবহাওয়া অফিসের তথ্য অনুযায়ী, আগামী ৪৮ ঘণ্টায় বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টিপাত ক্রমান্বয়ে কমতে পেতে পারে। তার পরবর্তী ৫ দিনে আবহাওয়া সামান্য পরিবর্তন হতে পারে।

গতকাল সকাল পর্যন্ত দেশে সর্বোচ্চ ৪০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে টাঙ্গাইলে, সেখানেই সর্বনিম্ন তামপাত্রা ১৮ দশমিক ৮ সেলসিয়াস রেকর্ড হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/টিএস/এনএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন