বুধবার ১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ইং , ২৯ কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৫ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

২২টি স্বর্ণ পদক নিয়ে বিকেএসপি চ্যাম্পিয়ন, ৯টি নতুন জাতীয় রেকর্ড

অক্টোবর ২৭, ২০১৯ | ৬:০৬ অপরাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

বাংলাদেশ অ্যাথলেটিকস ফেডারেশনের আয়োজনে ৩৫তম জাতীয় জুনিয়র (বয়সভিত্তিক) অ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতা-২০১৯ এর পর্দা নামলো। ২৫ ও ২৬ অক্টোবর দুই দিন ব্যাপী এই আসর বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রতিযোগিতার সমাপনী ঘোষণা করেন প্রধান অতিথি বাংলাদেশ অ্যাথলেটিকস ফেডারেশনের সভাপতি এ এস এম আলী কবীর

বিজ্ঞাপন

দুই দিন ব্যাপী প্রতিযোগিতায় ৯টি নতুন জাতীয় রেকর্ড হয়েছে। আসরের প্রথম দিনে ৩টি এবং দ্বিতীয় দিনে আরও ৬টি রেকর্ড হয়।

যেসব জাতীয় রেকর্ড হলো এবারের আসরে:
১। ১০০মিটার (কিশোরী) নতুন জাতীয় রেকর্ড বিকেএসপি’র সোনিয়া আক্তার, সময় নিয়েছেন ১২.১০ সে. পূর্বে এই ইভেন্টে একই সংস্থার ২০১৮ সালে রুপা খাতুন ১২.২০ সে. সময় নিয়েছিলেন।

২। হাইজাম্প (কিশোর) নতুন জাতীয় রেকর্ড বিকেএসপি’র জুলফিকার নাঈম জিহান ১.৯৬ মিটার উচ্চতা অতিক্রম করেছেন। এই ইভেন্টে ২০১৭ সালে একই সংস্থার মোঃ মাসুদ রানা ১.৯৫ মিটার রেকর্ড গড়েছিলেন।

৩। হাইজাম্প (কিশোরী) নতুন জাতীয় রেকর্ড বিকেএসপি’র জান্নাতুল ১.৬৫ মিটার উচ্চতা অতিক্রম করে নিজের পূর্বের রেকর্ড ভঙ্গ করেছেন। এই ইভেন্টে ২০১৮ সালে তারই ১.৬১ মিটার রেকর্ড ছিল।

৪। লংজাম্প (কিশোরী) বিকেএসপি’র জান্নাতুল ৫.৪২ মিটার অতিক্রম করে নতুন জাতীয় রেকর্ড করেন, ২০১১ সালে একই সংস্থার পাপিয়া রানী সরকার ৫.২৮ মিটার রেকর্ড গড়েছিলেন।

৫। ডিসকাস থ্রো (কিশোর) নতুন জাতীয় রেকর্ড রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের মোঃ এনামুল হক ৩৫.৬০মিটার দূরত্ব অতিক্রম করেন। বিকেএসপি লিমন হোসেন ২০১৮ সালে ৩৩.৫৫ মিটার রেকর্ড গড়েছিলেন। এই ইভেন্টে ২য় ও ৩য় স্থান অধিকারকারী দুজনই পূর্বের রেকর্ড ভঙ্গ করেছেন।

৬। ১০০মিটার (বালিকা) নতুন জাতীয় রেকর্ড বিকেএসপি’র সুমাইয়া দেওয়ান, সময় নিয়েছেন ১২.২২ সে.। এর আগে ২০১২ সালে এই ইভেন্টে একই সংস্থার রুপা খাতুন ১২.৪৪ সে. সময় নিয়েছিলেন।

৭। ডিসকাস থ্রো (কিশোরী) নতুন জাতীয় রেকর্ড বিকেএসপি’র শারমিন আক্তার ২৮.৯৫ মিটার দূরত্ব অতিক্রম করেন। ২০০৭ সালে একই সংস্থার আয়শা আক্তার ২৮.৩৪ মিটারে রেকর্ড গড়েছিলেন।

৮। ৪*৪০০ মিটার রিলে (কিশোর) নতুন জাতীয় রেকর্ড করেছে বিকেএসপি, সময় নিয়েছে ৩:৩০.৩৩ সে.। ২০১৮ সালে একই সংস্থা ৩:৩৪.৯০ সে. সময় নিয়েছিল।

৯। ২০০মিটার (বালিকা) নতুন জাতীয় রেকর্ড বিকেএসপি’র সুমাইয়া দেওয়ান সময় নিয়েছেন ২৫.৩২ সে.। ২০১৭ সালে এই ইভেন্টে একই সংস্থার রুপা খাতুন ২৫.৫০ সে. সময় নিয়েছিলেন।

২২টি স্বর্ণ, ০৯টি রৌপ্য এবং ০৫টি ব্রোঞ্জ সহ মোট ৩৬টি পদক নিয়ে বিকেএসপি পদক তালিকার শীর্ষস্থান দখল করে। ৩টি স্বর্ণ, ০৯টি রৌপ্য এবং ০৭টি ব্রোঞ্জ সহ মোট ১৯ টি পদক নিয়ে দ্বিতীয় হয়েছে নড়াইল জেলা ক্রীড়া সংস্থা এবং ০৩টি স্বর্ণ ০৪টি রৌপ্য ০৫টি ব্রোঞ্জ মোট ১২টি পদক নিয়ে তৃতীয় হয়েছে নোয়াখালী জেলা ক্রীড়া সংস্থা।

সেরা সংগঠকের পুরস্কার পান নড়াইল জেলার তৃণমূল পর্যায়ের কোচ ও সংগঠক যিনি ২০ বছর যাবৎ জাতীয় ও জুনিয়র মিটে অ্যাথলেট যোগান দিয়ে আসছেন। সেরা অ্যাথলেট (কিশোর) মোঃ জুলফিকার নাঈম জিহান বিকেএসপির হয়ে হাইজাম্পে নতুন জতীয় রেকর্ড গড়ে স্বর্ণ পদক অর্জন করেন। সেরা অ্যাথলেট (কিশোরী) জান্নাতুল বিকেএসপির হয়ে হাইজাম্প ও লংজাম্প ইভেন্টে ০২টি নতুন জাতীয় রেকর্ডসহ ১০০ মিটার হার্ডেলসে রৌপ্য পদক অর্জন করেন।

সেরা অ্যাথলেট (বালক) বান্দরবান জেলা ক্রীড়া সংস্থার অ্যাথলেট রানা শেখ ৪০০ মিটারে স্বর্ণপদক ও ৪*১০০ রিলে রৌপ্য পদক অর্জন করেন। সেরা অ্যাথলেট (বালিকা) সুমাইয়া দেওয়ান বিকেএসপির হয়ে ১০০মিঃ ও ২০০ মিঃ ইভেন্টে ০২টি নতুন জাতীয় রেকর্ডসহ ৪*১০০ মিটার রিলে স্বর্ণ পদক অর্জন করেন। সেরা অ্যাথলেট বালক, বালিকা এবং কিশোর, কিশোরীকে ফেডারেশনের পক্ষ থেকে নগত অর্থ পুরস্কার এবং ওয়ালটন গ্রুপের পক্ষ থেকে গিফট প্রদান করা হয়।

২ দিন ব্যাপি এই প্রতিযোগিতাকে সুষ্ঠ ও সুন্দরভাবে সাফল্য মন্ডিত করে সমাপ্তি করার জন্য ফেডারেশনের কার্যনির্বাহী কমিটির সকল কর্মকর্তা, রাষ্টীয় পুরস্কার প্রাপ্ত ও সাবেক জাতীয় ক্রীড়াবিদ, অফিসিয়াল, জাজ, আম্পায়ার, অংশগ্রহণকারী সকল জেলা ও বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা, শিক্ষা বোর্ড, টিম ম্যানেজার, অ্যাথলেটসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে বাংলাদেশ অ্যাথলেটিকস ফেডারেশনের পক্ষ থেকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করা হয়।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এমআরপি

Advertisement
বিজ্ঞাপন

Tags:

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন