সোমবার ১৮ নভেম্বর, ২০১৯ ইং , ৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২০ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

যে ইসরায়েলি কোম্পানি হোয়াটসঅ্যাপ হ্যাকিংয়ে ‘জড়িত’

নভেম্বর ১, ২০১৯ | ১:১৮ অপরাহ্ণ

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক

অন্তত ২০টি দেশের সরকারি কর্মকর্তা, কূটনৈতিক, মানবাধিকার কর্মী ও প্রভাবশালী সাংবাদিকদের হোয়াটসঅ্যাপ বার্তা হ্যাকারদের কবলে পড়েছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম হোয়াটসঅ্যাপ বিষয়টি স্বীকার করে মামলা দায়ের করেছে ইসরায়েলের অনলাইন নিরাপত্তা বিষয়ক কোম্পানি এনএসও গ্রুপের বিরুদ্ধে। অভিযোগ রয়েছে কোম্পানিটি এমন একটি বিশেষ হ্যাকিং টুল তৈরি করে যেটি স্মার্টফোনে প্রবেশের পর গ্রাহকের ব্যক্তিগত বার্তা হাতিয়ে নিতে সক্ষম। চলতি বছরের শুরু থেকে এভাবে ১৪শ হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর ক্ষতি করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

যেসব দেশের নাগরিকরা ভুক্তভোগী

এনএসও গ্রুপ যুক্তরাষ্ট্রের সরকারের কাছে সফটওয়্যার বিক্রির জন্য প্রসিদ্ধ। অভিযোগ রয়েছে হ্যাকিং এর জন্য বেছে নেওয়া হয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মিত্রদেরই। তবে হোয়াটসঅ্যাপ হ্যাকিং এর ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রের সম্পৃক্ততা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এতে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, সংযুক্ত আরব-আমিরাত, বাহরাইন, মেক্সিকো, পাকিস্তান ও ভারতের নাগরিকরা।

হ্যাকিং এ সম্পৃক্তরা অভিযোগ বিষয়ে এনএসও গ্রুপ জানিয়েছে, তারা অপরাধ ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে কাজের জন্য সফটওয়্যার বিক্রি করে। সাংবাদিক বা মানবাধিকার কর্মীদের ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নেয় না।

বিজ্ঞাপন

এদিকে ভারত সরকার ফেসবুকের মালিকানাধীন হোয়াটসঅ্যাপের কাছে এ ব্যাপারে ব্যাখ্যা চেয়েছে। চলতি বছরের মে মাসে অন্তত দু সপ্তাহ অন্তত ২০ ভারতীয়র হোয়াসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট হ্যাকারদের দখলে ছিল বলে কোম্পানিটি নিশ্চিত করেছে।

এনএসও গ্রুপের কুখ্যাতি

প্রযুক্তিবিদরা ইসরায়েলি এনএসও গ্রুপের বিরুদ্ধে আগেই সাবধান করেছিলেন। ২০১৬ সালে অভিযোগ উঠে প্রতিষ্ঠানটি আরব আমিরাতের বিরুদ্ধে গুপ্তচরবৃত্তি করছে। তাদের হ্যাকিং টুলগুলো সহজেই গ্রাহকের ক্যামেরা বা মাইক্রোফোনের প্রবেশাধিকার নিতে সক্ষম ও তথ্যচুরি করতে পারে। হোয়াটসঅ্যাপ বার্তা হ্যাক করা হলেও প্রযুক্তিবিদদের ধারণা এক্ষেত্রে ফেসবুক প্ল্যাটফর্মকে ব্যবহার করা হয়ে থাকতে পারে।

ইউনিভার্সিটি অব টরেন্টোর গবেষণা সংস্থা সিটিজেন ল্যাব জানায়, তারা অন্তত ১০০টি ঘটনা উন্মোচন করেছে যাতে এনএসও গ্রুপের বিরুদ্ধে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ স্পষ্ট।

খবর দ্য হিন্দু, বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড, ভাইসের।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এনএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন