মঙ্গলবার ১৯ নভেম্বর, ২০১৯ ইং , ৫ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২১ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

কিউইদের হারিয়ে সিরিজে সমতায় ইংলিশরা

নভেম্বর ৮, ২০১৯ | ২:৫০ অপরাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

সিরিজের চতুর্থ টি-টোয়েন্টিতে নেপিয়ারে মুখোমুখি হয় নিউজিল্যান্ড এবং ইংল্যান্ড। পাঁচ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজে এই ম্যাচ জিতে ২-২ এ সমতায় ফিরেছে ইংলিশরা। চতু্র্থ ম্যাচে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডকে ৭৬ রানে হারিয়েছে ইংল্যান্ড।

বিজ্ঞাপন

নেপিয়ারে টস জিতে ইংল্যান্ডকে ব্যাটিংয়ে পাঠান কিউই অধিনায়ক টিম সাউদি। আর সেখানেই সব থেকে বড় ভুলটি করে বসে কিউইরা। ব্যাটিংয়ে নেমে স্কোরবোর্ডে ১৬ রানে যোগ করতেই ইংলিশ ওপেনার জনি বেয়ারেস্টোর উইকেট তুলে নেন মিচেল স্যান্টনার। এরপর ৫৮ রানে টম ব্যান্টনের উইকেটও ঝুলিতে তুলে নেন স্যান্টনার।

এরপরেই যেন প্রলয়ঙ্করি কোনো ঝড় আসে স্বাগতিক কিউইদের ওপর। ডেভিড মালান এবং ইয়ন মরগানের ঝড়ো ইনিংসে ইংলিশরা ২৪১ রানের বড় সংগ্রহ দাঁড় করায়। মালান খেলেন ৫১ বলে ১০৩ রানের টর্নেডো ইনিংস। ইংলিশদের হয়ে সবচেয়ে দ্রুততম সময়ে তুলে নেন শতক। ৪৮ বলে শতক হাঁকান তিনি। এটিই তার টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের প্রথম শতক। তার পাশাপাশি যোগ্য সঙ্গী হিসেবে সঙ্গ দিয়েছেন অধিনায়ক মরগান। নামের পাশে তিনি যোগ করেন মাত্র ৪১ বলে ৯১ রান। এই দুই ব্যাটসম্যানের ঝড়ো ইনিংসে ভর করে ইংলিশরা নির্ধারিত ২০ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে সংগ্রহ করে ২৪১ রান।

বিজ্ঞাপন

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা বেশ ভালই করে স্বাগতিকরা। তবে দলীয় ৫৪ ও ব্যাক্তিগত ২৭ রানে গাপটিল ফিরে গেলে কিউইদের ব্যাটিং অর্ডার ভেঙে পড়ে। গাপটিলের বিদায়ের পর একে ফিরে যান কিউই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানরা এবং সেই সঙ্গে ব্যর্থ হয় মিডল অর্ডারও। ইংলিশদের হয়ে ম্যাট পারকিন্সনের বোলিং তোপে মাত্র ৮৯ রান তুলতেই ৬ উইকেট হারায় কিউই ব্যাটসম্যানরা।

কলিন মুনরোর ৩০ আর শেষ দিকে টিম সাউদির ১৫ বলে ৩৯ রানের ইনিংস শুধু হারের ব্যবধানই কমিয়েছে কিউইদের। শেষ পর্যন্ত সবগুলো উইকেট হারিয়ে ১৬.৫ ওভারে ১৬৫ রান তোলে নিউজিল্যান্ড। আর ইংলিশরা জয় পায় ৭৬ রানের। পাঁচ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের চতুর্থ ম্যাচটি জিতে সিরিজে ২-২ এ সমতায় ফেরে সফরকারী ইংল্যান্ড।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এনএ/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন