সোমবার ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ২ পৌষ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৮ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

রিয়াল-বার্সা-অ্যাতলেটিকোকে নিয়ে সৌদিতে স্প্যানিশ সুপার কাপ

নভেম্বর ১২, ২০১৯ | ১:২২ অপরাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

সাধারণত স্প্যানিশ ফুটবলের মৌসুম শুরু হয় স্প্যানিশ সুপার কাপ দিয়েই। তবে ব্যতিক্রম কেবল এই মৌসুমেই। চলতি ২০১৯-২০ মৌসুমের স্প্যানিশ সুপারকাপ নিয়ে নতুন পরিকল্পনা স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশনের। আর সেই পরিকল্পনা নিয়েই সৌদি আরবে অনুষ্ঠিত হবে এবারের স্প্যানিশ সুপারকাপ। তবে প্রতিবারের ন্যয় লা লিগার চ্যাম্পিয়ন এবং কোপা দেল রে’র চ্যাম্পিয়নই নয় সেই সঙ্গে যুক্ত হচ্ছে লিগে গেল মৌসুমে দ্বিতীয় এবং তৃতীয় স্থানে থাকা দলও।

বিজ্ঞাপন

স্প্যানিশ লা লিগায় গেল মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনা, কোপা দেল রে’র চ্যাম্পিয়ন ভ্যালেন্সিয়া আর সেই সঙ্গে যুক্ত হয়েছে লিগে দ্বিতীয় এবং তৃতীয় হওয়া দুই দল অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ এবং রিয়াল মাদ্রিদ। সৌদি আরবে অনুষ্ঠিত এবারের স্প্যানিশ সুপারকাপের ফিক্সচার চূড়ান্ত করেছে লা লিগা।

নতুন ফরম্যাট অনুযায়ী ২০২০ সালের ৮ জানুয়ারি প্রথম সেমিফাইনালে কোপা দেল রে’র চ্যাম্পিয়ন ভ্যালেন্সিয়া মুখোমুখি হবে রিয়াল মাদ্রিদের। এরপর ৯ জানুয়ারি লিগ চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনার প্রতিপক্ষ অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ। ১২ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে ফাইনাল। তিনটি ম্যাচই হবে সৌদি আরবে। এশিয়ায় লা লিগার দর্শক বৃদ্ধি করার লক্ষ্যেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা, লা লিগা প্রেসিডেন্ট হ্যাভিয়ের তেবাসই জানিয়েছেন এমনটা।

বিজ্ঞাপন

লা লিগার প্রেসিডেন্ট হ্যাভিয়ের তেবাস সুপারকাপের ড্র’য়ের সময় উপস্থিত ছিলেন। আর এ সময় তিনি বলেন, ‘সুপারকাপ আরও বেশি প্রতিযোগিতাপূর্ণ করতে এই মৌসুম থেকে টুর্নামেন্টের ফরম্যাটটাই পরিবর্তন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা। আমরা সবাই মিলে আলোচনা করেই এমন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি। নতুন ফরম্যাট অনুযায়ী কোপা দেল রে চ্যাম্পিয়ন এবং লা লিগার শীর্ষ তিন দল লড়বে সুপারকাপের জন্য। এতদিন স্পেনেই আয়োজিত হতো টুর্নামেন্টটি। তবে আমরা চাই লা লিগা যেন বিশ্বের সকল ফুটবলপ্রেমীদের কাছে পৌঁছে যেতে পারে। আর এই কারণেই গত বছর প্রথমবারের মতো স্পেনের বাইরে মরক্কোতে হয়েছিল সুপারকাপের ম্যাচ। এভাবে প্রতিবছর বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে টুর্নামেন্টটি আয়োজনের ইচ্ছা আছে আমাদের।‘

দুই সেমিফাইনাল এবং ফাইনাল- তিনটি ম্যাচই অনুষ্ঠিত হবে সৌদি আরবের জেদ্দা শহরের কিং আব্দুল্লাহ স্পোর্টস সিটি স্টেডিয়ামে। স্প্যানিশ সুপারকাপের ইতিহাসে সবচেয়ে সফল বার্সেলোনা, ১৩বার শিরোপা ঘরে তুলেছে তারা। স্প্যানিশ সুপারকাপের ইতিহাসে সর্বোচ্চ গোলদাতা লিওনেল মেসি (১৩)। ৭ গোল নিয়ে দুইয়ে আছেন রিয়ালের রাউল গঞ্জালেজ।

এই টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী চার দল পাবে বেশ বড় অঙ্কের সম্মানিও। তবে এখানেই দেখা মেলে বৈষম্যের। বিশ্বের সব থেকে ধনী ক্লাবের মধ্যে অন্যতম রিয়াল মাদ্রিদ এবং বার্সেলোনা। আর তাদের সমর্থকের সংখ্যাটাও নিহাতই কম নয়। আর তাই তো তাদেরকেই যে বেশি অর্থ প্রদান করবে লা লিগা তা নিয়ে সন্দিহান হওয়াটাই ভুল। স্প্যানিশ সুপারকাপে এবারে অংশগ্রহণ করার কারণে রিয়াল মাদ্রিদ এবং বার্সেলোনা দুই ক্লাবই পাবে সর্বোচ্চ ৯ মিলিয়ন ইউরো করে। এরপর অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ পাবে সাড়ে ৫ মিলিয়ন ইউরো আর কোপা দেল রে’র চ্যাম্পিয়ন হওয়া ভ্যালেন্সিয়া পাবে সাড়ে ৩ মিলিয়ন ইউরো। আর স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশন তাদের একাউন্টে যোগ করবে সর্বোচ্চ ১৩ মিলিয়ন ইউরো।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন