রবিবার ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ২৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১০ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

বিয়েতে খাবার অপচয় সবচেয়ে বেশি, নষ্ট না করার আহ্বান

নভেম্বর ১৩, ২০১৯ | ৯:৩২ অপরাহ্ণ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: বিয়েতে সবচেয়ে বেশি খাবার অপচয় হয়। এরপরেই রয়েছে রেস্টুরেন্ট। ৪৫ শতাংশ তরুণ দেশী খাবার পছন্দ করে। ৪৪ শতাংশ তরুণ ফাস্টফুড খেতে ভালোবাসে। রেস্টুরেন্টে তরুণদের প্রতিমাসে খরচ হয়ত অন্তত ৩ হাজার টাকা।

বিজ্ঞাপন

অ্যাকশন এইড পরিচালিত ‘ঢাকাবাসী জনগোষ্ঠীর খাদ্যাভাস ও প্রবণতা’ বিষয়ক এক গবেষণা প্রতিবেদনে এমন তথ্য উঠে এসেছে। বুধবার (১৩ নভেম্বর) বিকেলে রাজধানীর একটি হোটেলে ওই গবেষণার বিভিন্ন তথ্য তুলে ধরা হয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অ্যাকশন এইডের কান্ট্রি ডিরেক্টর ফারাহ কবীর, পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এম মনজুরুল হান্নান খান, খানস কিচেনের চেয়ারম্যান ও রন্ধনশিল্পী টনি খান, ম্যকমের সিইও রাবেথ খান এবং ওয়ার্ল্ড ফুডের কান্ট্রি রিপ্রেজেনটেটিভ রিচার্ড রিগান।

রাজধানীর উত্তরা, গুলশান-বনানী-বারিধারা, মোহাম্মদপুর, ধানমন্ডি এবং পুরানা ঢাকায় ৫ টি এলাকার ১ হাজার ৫০০ মানুষের ওপর এই গবেষণা পরিচালনা করা হয়।

বিজ্ঞাপন

গবেষণায় বলা হয়েছে, তরুণদের (১৫-২৪ বছর) ৪৫ শতাংশ দেশী খাবার পছন্দ করে। ৪৪ শতাংশ তরুণ ফাস্টফুড খেতে ভালোবাসে। তরুণদের একটি অংশ মাসে সর্বনিম্ন ৩ হাজার টাকা রেস্টুরেন্টে খরচ করে। ৯১ শতাংশ তরুণই মেন্যুর খাবার পছন্দ করেন। বুফে পছন্দ ৯ শতাংশের।

রেস্টুরেন্টে ৮৮ শতাংশ তরুণই বোতলজাত পানি ব্যবহার করে। তাতে বাড়তি পানি থেকে গেলে ৮০ শতাংশ তরুণই তা নিয়ে যায়।

তরুণদের ৫২ শতাংশ মনে করে বিয়ে বাড়িতে খাবার বেশি অপচয় হয়। ৩০ শতাংশের মতে রেস্টুরেন্টেও খাবার অপচয় হয়। ৪১ শতাংশ মনে করেন গোসলে পানির সবচেয়ে বেশি অপচয় হয়। কাপড় ধোয়ায় পানির অপচয় হয় বলে মনে করেন ৩২ শতাংশ। ৭১ শতাংশই মনে করে অতিরিক্ত খাবারের জন্য স্বাস্থ্যের ক্ষতি হয়। ৪৮ শতাংশ তরুণ গ্যাস্ট্রিকের সমস্যায় ভোগেন।

২৫ বছরের বেশি বয়সের বা ছোট পরিবারে মাসে খাবারের পেছনে ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা খরচ হয়। এক লাখ টাকার বেশি যাদের আয় তাদের খরচ ২০ হাজার টাকা। বাসায় খাবার বাড়তি থাকলে ৫৭ শতাংশই তা ফ্রিজিং করে রাখেন। ৩০ শতাংশ তা কাউকে না কাউকে দিয়ে দেয়৷

ছোট পরিবারগুলোও রেস্টুরেন্টে মাসে ৩ হাজার টাকা খরচ করে। ৫৭ শতাংশ পরিবার মনে করে বিয়েতে খাবার অপচয় হয়, আর ২৮ শতাংশ মনে করেন রেস্টুরেন্টে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, ১৫ থেকে ২৪ বছরের বয়সসীমার ৫২ শতাংশ মনে করেন বিয়েতে খাবারের বেশি অপচয় হয়। আর ২৫ থেকে তারচেয়ে বেশি বয়সের মানুষ মনে করেন বিয়েতে খাবারের অপচয় হয় ৫৭ শতাংশ।

আলোচনায় অংশ নিয়ে বক্তারা বলেন, কোনোভাবেই খাবার অপচয় করা যাবেনা। খাবার রাষ্ট্রীয় সম্পদ। খাবার বেড়ে গেলে তা বিলি-বন্টন করে দিতে হবে। পলিথিন ও বোতলজাত পানির ব্যবহার নিয়েও উষ্মা প্রকাশ করেন আলোচকরা।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/ইএইচটি/এনএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন