সোমবার ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ২ পৌষ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৮ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

ব্যাটসম্যানরা পারেননি তবে শতক হাঁকিয়েছেন টাইগার বোলাররা

নভেম্বর ১৫, ২০১৯ | ৬:১০ অপরাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

ভারতের ইন্দোরের প্রথম টেস্ট দিয়েই বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের যাত্রা শুরু হয়েছে বাংলাদেশের। আর প্রথম টেস্টের প্রথম দিনেই ব্যর্থতায় ভেসেছে টাইগার ক্রিকেটাররা। ব্যাট হাতে ব্যর্থ হয়ে ফিরেছেন টাইগারদের প্রায় সব ব্যাটসম্যানই। ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতার পর বল হাতেও ব্যর্থ টাইগার বোলাররা। বাংলাদেশের বোলারদের বিপক্ষে তাই দ্বিতীয় দিন শেষে রানের পাহাড় গড়েছে ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা।

বিজ্ঞাপন

ব্যাট হাতে টাইগার ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সব থেকে বেশি রান করেছেন মুশফিকুর রহিম। তার নামের পাশে নেই কোনো অর্ধশতক, স্কোরবোর্ড বলছে মুশি প্রথম ইনিংসে করেছিলেন মাত্র ৪৩ রান। আর তারপর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান আসে অধিনায়ক মুমিনুল হকের ব্যাট থেকে। টাইগার অধিনায়ক করেন মাত্র ৩৭ রান। অর্থাৎ পুরো টাইগার ব্যাটিং লাইনআপের মধ্যে শতক তো দূরের কথা কোনো ব্যাটসম্যান হাঁকাতে পারেননি একটি অর্ধশতকও।

তবে টাইগার ব্যাটসম্যানরা না পারলেও বোলাররা ঠিকই নামের পাশে যুক্ত করেছেন শতকের সিল মোহর। ভারতের বিপক্ষে চারজন মূল বোলার নিয়ে খেলেছে বাংলাদেশ। আর সেই চারজনই ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের বিপক্ষে হাঁকিয়েছেন শতক। অর্থাৎ চার বোলারই দিয়েছেন ১০০ এর অধিক রান। আর এই চারজনের মধ্যে কেবল তিনজন উইকেট নিতে পেরেছেন কমপক্ষে একটি করে।

ইন্দোর টেস্টের দ্বিরীয় দিনে টাইগার বোলারদের মধ্যে নি:সন্দেহে সেরা বোলার ছিলেন আবু জায়েদ রাহী। প্রথম দিন রোহিত শর্মাকে তুলে নেওয়ার পর দ্বিতীয় দিনে আউট হওয়া প্রথম তিন ভারতীয় ব্যাটসম্যানের মধ্যে তিনজনকেই নিজের ঝুলিতে তুলে নিয়েছিলেন। তবে বাকি বোলাররা ঠিকই ব্যর্থ ছিলেন দ্বিতীয় দিনে।

বিজ্ঞাপন

দ্বিতীয় দিন শেষে টাইগার বোলারদের বোলিং পরিসংখ্যান:

বোলার ওভার রান উইকেট ইকোনমি
আবু জায়েদ রাহী ২৫ ১০৮ ৪.৩২
এবাদত হোসেন ৩১ ১১৫ ৩.৭০
মেহেদী হাসান মিরাজ ২৭ ১২৫ ৪.৬২
তাইজুল ইসলাম ২৮ ১২০ ৪.২৮
মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ২৪

টাইগার বোলারদের এমন উদার বদান্যতার কারণেই রানের পাহাড় গড়তে পেরেছে ভারত। অন্যদিকে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের বিপক্ষে বেশ কৃপণই ছিলেন ভারতীয় বোলাররা। যেখানে সর্বোচ্চ রান দিয়েছিলেন উমেষ যাদব। ১৪.৩ ওভার বল করে ৪৭ রান দিয়ে নিয়েছিলেন ২টি উইকেট।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন