রবিবার ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ২৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১০ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

শ্যুটিং শেষ ‘অভিযাত্রিক’র, চলছে সম্পাদনার কাজ

নভেম্বর ১৬, ২০১৯ | ১:৫৯ অপরাহ্ণ

এন্টারটেইনমেন্ট করেসপন্ডেন্ট

ছয় দশক আগে বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সৃষ্ট চরিত্র ‌‘অপু’কে রূপালি জগতে পরিচয় করিয়ে দিয়েছিলেন সত্যজিৎ রায়। বিখ্যাত ওই ঔপন্যাসিকের ‘পথের পাঁচালি’ ও ‘অপরাজিত’ উপন্যাসকে তিনভাগে ভাগ করে ট্রিলজি নির্মাণ করেছিলেন সত্যজিৎ।

বিজ্ঞাপন

এবার কলকাতার পরিচালক শুভ্রজিৎ মিত্র ‘অপরাজিত’ উপন্যাসের শেষ ১০০টি পাতার ওপর নির্ভর করে ‘অভিযাত্রিক’ নামে একটি ছবি নির্মাণ করেছেন। এতে অপু চরিত্রে অভিনয় করেছেন অর্জুন চক্রবর্তী। সত্যজিৎ রায়ের অপু চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন কিংবদন্তি অভিনেতা সৌমিত্র চ্যাটার্জী।

ছবিতে অপুর স্ত্রী’র চরিত্রে অভিনয় করেছেন টেলিভিশনের জনপ্রিয় মুখ দিতিপ্রিয়া রায়। এছাড়া অ্যাডভেঞ্চারপ্রিয় শঙ্করের চরিত্রে আছেন সব্যসাচী চক্রবর্তী। ছবিতে অর্পিতা চট্টোপাধ্যায়কে দেখা যাবে লীলার চরিত্রে, রাণুদির ভূমিকায় থাকছেন শ্রীলেখা মিত্র।

বিজ্ঞাপন

পরিচালক জানিয়েছেন, ইতোমধ্যে ছবির কাজ শেষ হয়েছে। এবার প্রহর গুনছে মুক্তির। পশ্চিমবঙ্গের বারানসি, ডুয়ার্স, বোলপুর, টাকিতে ছবির দৃশ্যধারণের কাজ হয়েছে। সারাবাংলা ডটনেটকে শুভ্রজিৎ মিত্র বলেন, এই ছবির দৃশ্যধারণ করার সময় আমরা বাস্তব ও পরাবাস্তব বিষয়গুলো মাথায় রেখেছিলাম। আমার ছবিতে বেশ কিছু চমক রয়েছে। সত্যজিতের ট্রিলজিতে লীলার জায়গা হয়নি। কিন্তু প্রধান উপন্যাসে লীলা গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্র। এছাড়া অপুর মাঝ বয়সের বন্ধু শঙ্করকেও দেখা যাবে।

মূলত অপু ও তার ছেলে কাজলের মধ্যেকার সম্পর্কের নানা উত্থান-পতনের ওপর ‘অভিযাত্রিক’ ছবির গল্প এগিয়েছে। দৃশ্যধারণের পর এখন ছবির পোস্ট প্রোডাকশনের কাজ চলছে।

সত্যজিতের অপু চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন সৌমিত্র চ্যাটার্জী। আর শুভ্রজিতের অপু চরিত্রে অভিনয় করলেন অর্জুন চক্রবর্তী। ছবি: পরিচালক থেকে পাওয়া
সত্যজিতের অপু চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন সৌমিত্র চ্যাটার্জী। আর শুভ্রজিতের অপু চরিত্রে অভিনয় করলেন অর্জুন চক্রবর্তী। ছবি: পরিচালক থেকে পাওয়া

সাদাকালো আবহে নির্মিত হয়েছে ছবিটি। এটি প্রযোজনা করেছেন গৌরঙ্গ জালান। সহ-প্রযোজক হিসেবে আছেন মধুর ভান্ডারকর।

উল্লেখ্য, এই ছবিতে পরিচালকের প্রথম পছন্দ ছিলেন আরিফিন শুভ। কিন্ত ভিসা জটিলতার কারণে শুভ অভিনয় করতে পারেননি। তার বিকল্প হিসেবে পরিচালক অর্জুন চক্রবর্তীকে বেছে নেন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/আরএসও/এএসজি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন