শুক্রবার ৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ২২ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ৮ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

রাবি শিক্ষার্থী সোহরাব হত্যা চেষ্টায় আটক ৪

নভেম্বর ১৬, ২০১৯ | ৬:২৭ অপরাহ্ণ

রাবি করেসপন্ডেন্ট

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ফিন্যান্স বিভাগের ছাত্র সোহরাব হোসেনকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে চার জনকে আটক ও করেছে মতিহার থানা পুলিশ। শনিবার (১৬ নভেম্বর) তাদের আটক করা হয়।

বিজ্ঞাপন

আটক ব্যক্তিরা হলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র আকিমূল ইসলাম রিফাত ও হাসানুজ্জামান, ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র সূজন ও লোক প্রশাসন বিভাগের দ্বিতীয় বিভাগের ছাত্র আসিফ।

রাবি শিক্ষার্থীকে মারধর, ৩ দফা দাবিতে উত্তাল ক্যাম্পাস

তবে এ ঘটনায় অভিযুক্ত ছাত্রলীগের দুই কর্মী নাহিদ ও আসিফ ঘটনার পর থেকে নিখোঁজ। তারা দুজনেই শামছোজ্জোহা হল শাখা ছাত্রলীগের দায়িত্বে রয়েছেন এবং রাবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়ার অনুসারী।

বিজ্ঞাপন

এর আগে হত্যাচেষ্টার প্রতিবাদে ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়ক অবরোধ করে, অবিলম্বে নাহিদ ও আসিফসহ হত্যা চেষ্টায় জড়িতদের গ্রেফতার, তাদের স্থায়ীভাবে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার, নিরাপত্তা প্রদানে ব্যর্থ হওয়ায় হল প্রাধ্যক্ষের পদত্যাগ ও গুরুতর আহত শিক্ষার্থীর চিকিৎসার সকল ব্যয়ভার বহনের দাবি উত্থাপন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

এ ঘটনায় হত্যাচেষ্টার শিকার শিক্ষার্থী সোহরাব বাদী হয়ে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মতিহার থানায় হত্যাচেষ্টা মামলা দায়ের করেছেন বলে জানিয়েচেন নগরীর মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হাফিজুর রহমান।

গত শুক্তবার দিবাগত রাত দেড়টায় ল্যাপটপ চুরির সন্দেহের ছাত্রলীগ কর্মী আসিফ লাকের নেতৃত্বে সোহরাবসহ ফ্যাইনান্স বিভাগের কয়েকজন শিক্ষার্থীকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শামসুজ্জোহা হলের ছাদ থেকে ডেকে তৃতীয় ব্লকের ২৫৪ নাম্বার কক্ষে নিয়ে যান। সেখানে সোহরাবকে নানা রকম কথা জিজ্ঞাসাবাদ করে আসিফ লাক ও হুমায়ুন কবির নাহিদ। এক পর্যায়ে বাকবিতণ্ডা শুরু হলে তারা দুজন সোহরাবকে মারধর করে।

আজ শনিবার সকাল ১১টার পর থেকে তিন দফা দাবিতে আন্দোলনে নামে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা। আন্দোলন মুখে শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নেওয়ার আশ্বাসে আন্দোলন স্থগিত করেছে শিক্ষার্থীরা। শনিবার বিকেল ৩টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাসভবনে এক বৈঠকে আলোচনা শেষে শিক্ষার্থীদের সকল দাবি মেনে নেওয়ার আশ্বাস দেন ফাইন্যান্স বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক রুস্তম আলী।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য আনন্দ কুমার সাহা, ছাত্র উপদেষ্টা লায়লা আরজুমান বানু।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন