রবিবার ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ২৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১০ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

দেশে পর্যাপ্ত লবণ রয়েছে: শিল্প মন্ত্রণালয়

নভেম্বর ১৯, ২০১৯ | ৩:৫৭ অপরাহ্ণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: বাজারে লবণের দাম বৃদ্ধির কোনো কারণ নেই বলে জানিয়েছে শিল্প মন্ত্রণালয়। দেশে বর্তমানে প্রায় আড়াই লাখ মেট্রিক টন লবণ মজুদ রয়েছে বলেও তারা জানিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) দুপুরে শিল্প মন্ত্রণালয় থেকে জারি করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, দেশের বিভিন্ন লবণ মিলের গুদামে দুই লাখ ৪৫ হাজার মেট্রিকটন লবণ মজুদ রয়েছে। কক্সবাজার ও চট্টগ্রামের লবন চাষিদের কাছে চার লাখ পাঁচ হাজার মেট্রিকটন লবণ রয়েছে। এছাড়া সারাদেশে লবণ কোম্পানির ডিলার, পাইকারি ও খুচরা বিক্রেতাদের কাছেও পর্যাপ্ত পরিমানে লবণ রয়েছে। পাশাপাশি চলতি নভেম্বর মাস থেকে লবণের উৎপাদন মওসুম শুরু হয়েছে। ইতোমধ্যে কক্সবাজার জেলার কুতুবদিয়া ও মহেশখালী উপজেলায় উৎপাদিত নতুন লবণও বাজারে আসতে শুরু করেছে।

বাজারে লবণের মূল্য বৃদ্ধি নিয়ে যে অভিযোগ উঠেছে তার কোনো ভিত্তি নেই বলেও আশ্বস্ত করেছে শিল্প মন্ত্রণালয়। এটি নিছক গুজব বলে উল্লেখ করা হয়েছে ওই সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে।

বিজ্ঞাপন

শিল্প মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, দেশে প্রতি মাসে ভোজ্য লবণের চাহিদা কম-বেশি এক লাখ মেট্রিক টন। অন্যদিকে লবণের মজুদ রয়েছে সাড়ে ছয় লাখ মেট্রিক টন। সে হিসাবে লবণের কোনো ধরণের ঘাটতি বা সংকট হওয়ার প্রশ্নই ওঠে না।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, ‘একটি স্বার্থানেষী মহল লবণের সংকট রয়েছে বলে গুজব রটনা করে অধিক মুনাফা লাভের আশায় লবণের দাম অস্থিতিশীল করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে বলে মনে হচ্ছে। এ ধরণের গুজবে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য শিল্প মন্ত্রণালয় সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করছে।’

উল্লেখ্য, লবণ সংক্রান্ত বিষয়ে তদারকির জন্য শিল্প মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প কর্পোরেশন (বিসিক) প্রধান কার্যালয়ে ইতোমধ্যে একটি কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। এর নম্বর হচ্ছে: ০২-৯৫৭৩৫০৫ (ল্যান্ড ফোন), ০১৭১৫-২২৩৯৪৯ (সেল ফোন)।

 

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/জেআর/এসএমএন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন