রবিবার ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ২৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১০ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

ঘুষের টাকাসহ গ্রেফতার প্রকৌশলী ফখরুলের সাক্ষ্য গ্রহণ

নভেম্বর ১৯, ২০১৯ | ৬:৩৪ অপরাহ্ণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: নৌ অধিদফতরের প্রধান প্রকৌশলী ও শিপ সার্ভেয়ার এ কে এম ফখরুল ইসলামের বিরুদ্ধে ৫ লাখ টাকা ঘুষ গ্রহণের অভিযোগের মামলায় দুদকের এক কর্মকর্তা সাক্ষ্য দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলনার (১৯ নভেম্বর) দুপুরে ঢাকার ৯ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক শেখ হাফিজুর রহমান এ সাক্ষী সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আগামী ৮ ডিসেম্বর পরবর্তী সাক্ষ্য গ্রহণের দিন ঠিক করেন।

ওই সাক্ষী হলেন, দুদকের উপ-সহকারী পরিচালক মো. নূর আলম। তিনি আসামি ফখরুল ইসলামকে আটকের ঘটনায় দুদকের ফাঁদ টিমের সদস্য ছিলেন। ওই সম্পর্কেই তিনি আজ সাক্ষ্য দিয়েছেন।

একই সঙ্গে আদালত জামিনে থাকা আসামি এ কে এম ফখরুল ইসলামকে চিকিৎসার জন্য বিদেশ গমনের অনুমতি নামঞ্জুর করেন।

বিজ্ঞাপন

এদিন আসামি পক্ষে আইনজীবী অ্যাডভোকেট আমিনুল গণি টিটো ও প্রকাশ রঞ্জন বিশ্বাস সাক্ষীকে জেরা ও বিদেশ গমনের আবেদনের শুনানি করেন।

মামলাটিতে মোট ২১ জন সাক্ষীর মধ্যে ১২ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষ করেছে আদালত।

২০১৮ সালের ১৫ জুলাই একই আদালত আসামির বিরুদ্ধে চার্জগঠন করে বিচার শুরু করেন।

২০১৭ সালের ২৩ নভেম্বর মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের সহকারী পরিচালক মনিরুল ইসলাম চার্জশিট দাখিল করেন।

উল্লেখ্য, এমভি নওফেল লিহান জাহাজের নকশা অনুমোদনের জন্য ৫ লাখ টাকা ঘুষ দাবি করেন ফখরুল। ওই প্রস্তাবের পরিপ্রেক্ষিতে বেঙ্গল মেরিন কর্তৃপক্ষ বিষয়টি দুর্নীতি দমন কমিশনকে অবহিত করে। বিষয়টি জানার পর দুদকের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক নাসিম আনোয়ারের নেতৃত্বে বিশেষ টিম সকাল থেকে ওই ভবনের চারদিকে অবস্থান নেয়। এরপর বেলা ২টার দিকে ওই প্রতিষ্ঠানের অথরাইজড পারসন এ এন এম বদরুল আলমের কাছ থেকে ৫ লাখ টাকা ঘুষ নেওয়ার পর ওই টাকাসহ হাতে নাতে তাকে আটক করা হয়।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এআই/এমআই

Advertisement
বিজ্ঞাপন

Tags: , ,

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন